বিদ্যালয়ের গাছ নিলাম হলো ৪টি, মেম্বার কেটে নিলেন ৭টি

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি চাঁদপুর
প্রকাশিত: ০১:৩৮ এএম, ১৫ জুন ২০২১ | আপডেট: ০১:৪০ এএম, ১৫ জুন ২০২১

চাঁদপুর সদর উপজেলার ২ নং আশিকাটি ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ড পাইকাস্তা গ্রামে ২৪ নং উত্তর পাইকাস্তা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নতুন ভবন নির্মাণের জন্য বিদ্যালয়ের আঙ্গিনায় চারটি গাছ কেটে অপসারণ করতে হবে।

এ বিষয়ে ১১ এপ্রিল উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার নাজমা বেগম স্বাক্ষরিত একটি নিলাম বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়।

সেই নিলাম বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, রেইনট্রি ২টি, নারকেল গাছ ২টি নিলামে বিক্রি করা হবে। নিলামে গাছগুলো ক্রয় করেন আশিকাটি ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ড মেম্বার শামসুল হক প্রধানীয়।

jagonews24

অভিযোগ উঠেছে, মেম্বার শামসুল হক প্রধানীয় নিলামে রেইনট্রি ২টি ও ২টি নারিকেল গাছ কিনলেও প্রভাব খাটিয়ে অতিরিক্ত আরও ২টি নিম গাছ ও ১টি রেইনট্রিটিসহ মোট ৭টি গাছ কেটে নিয়েছেন।

এ বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন স্থানীয় বাসিন্দা বলেন, ‘মেম্বার ওইদিন বলেছেন শিক্ষা অফিসের কর্মকর্তা জাহিদ স্যার অনুমতি দিছে। তাই অতিরিক্ত আরও তিনটা গাছ কেটে নিয়েছেন তিনি।’

এলাকাবাসীর অভিযোগ, শামসুল হক মেম্বার ক্ষমতার অপব্যবহার করে গাছ কেটে নিয়েছেন। প্রভাবশালী হওয়ার কেউ প্রতিবাদ করতে পারেননি। যথাযথ কর্তৃপক্ষকে এই বিষয় পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানান স্থানীয়রা।

বিদ্যালয়ের সভাপতি জালাল উদ্দিন তপদার বলেন, ‘স্কুলের ম্যাডাম উপরে না জানাইলেই হইতো। এত বাজাবাজি হইতো না।’

jagonews24

এ বিষয়ে স্কুলের প্রধানশিক্ষক হামিদা আক্তারকে ফোন করলে তা বন্ধ পাওয়া যায়। ফলে তার বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি। এছাড়া অভিযুক্ত শামসুল হক প্রাধানীকেও খোঁজ করে তাকে পাওয়া যায়নি।

তবে এ বিষয়ে উপজেলা শিক্ষা অফিসার নাজমা বেগম বলেন, ‘বিদ্যালয় থেকে আমাকে জানিয়েছে। আমি লোক পাঠিয়েছি। ঘটনার সত্যতা পেয়েছি। স্কুল থেকে লিখিত অভিযোগ দিলে আমি ইউএনওকে বিষয়টি জানাব।’

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহনাজ সানজিদা বলেন, ‘এই বিষয় কেউ আমাকে কিছু বলেনি। খবর নিয়ে বিষয়টি দেখব।’

নজরুল ইসলাম আতিক/জেডএইচ/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]