নড়াইলে গৃহবধূকে দলবেঁধে ধর্ষণ, গ্রেফতার ৪

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নড়াইল
প্রকাশিত: ১০:০৫ পিএম, ২২ জুন ২০২১
ফাইল ছবি

 

নড়াইলের কালিয়া উপজেলায় স্বামীর ইন্ধন ও সহযোগিতায় এক গৃহবধূকে দলবেঁধে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী নারী বাদী হয়ে সোমবার (২১ জুন) রাতে স্বামীসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে কালিয়া
থানায় মামলা করেছেন। পুলিশ ইতোমধ্যে চার অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে। তার স্বামী একটি বাহিনীর সদস্য হওয়ায় তাকে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এর আগে, রোববার রাতে ধর্ষণের ঘটনাটি ঘটে।

মামলার বিবরণে জানা যায়, প্রায় ১০ বছর আগে ওই গৃহবধূর বিয়ে হয়। এই দম্পতির তিনটি সন্তান রয়েছে। কিছুদিন ধরে সম্পর্কের অবনতি হওয়ায় স্বামী তাকে নানাভাবে নির্যাতন করে আসছিলেন। এরই মধ্যে ওই গ্রামের এক যুবক ওই গৃহবধূকে নানাভাবে উত্যক্ত করতে থাকে।

রোববার দিবাগত রাত ২টার দিকে উত্যক্তকারীসহ চার স্থানীয় যুবক বাড়িতে গিয়ে ওই নারীকে ঘুম থেকে ডেকে তুলে দরজা খুলতে বলে। গৃহবধূ রাজি না হলে তখন অভিযুক্তরা তার স্বামীকে ফোন করে। তার স্বামী কর্মস্থল থেকে ফোন করে বললে গৃহবধূ ঘরের দরজা খুলে দেয়।

এরপর অভিযুক্তরা ঘরে ঢুকে তার সন্তান ও বাধা দিতে আসা এক প্রতিবেশীকে মারপিট করে ঘর থেকে বের করে দেয়। পরে তারা দরজা আটকে গৃহবধূকে ধর্ষণ করে এবং ঘটনার ভিডিও ধারণ করে কর্মস্থলে থাকা স্বামীর মোবাইল ফোনে পাঠায়।

ওই ঘটনায় ভুক্তভোগী নারী বাদী হয়ে সোমবার রাতে স্বামীসহ একই গ্রামের রিয়াজ শেখ (২৪), মিল্লাত হোসেন (২৮), দীন মহম্মাদ কালু (২২) ও তালহা জোবায়ের আশিককে (২১) আসামি করে মামলা করে।

ঘটনার পর তার স্বামী ছুটি নিয়ে বাড়িতে আসেন। তখন স্ত্রীর করা মামলার আসামি হওয়ায় পুলিশ তাকে হেফাজতে নেয়।

কালিয়া থানার ওসি সেখ কনি মিয়া বলেন,‘গৃহবধূকে ধর্ষণের ঘটনায় চারজনকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। স্বামীকে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।’

মঙ্গলবার দুপুরে গৃহবধূকে পরীক্ষার জন্য নড়াইল সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

হাফিজুল নিলু/এসএস/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]