দেড় মণ ওজনের কাঁঠাল, বিক্রি হলো ২৩শ টাকায়

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কিশোরগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৬:০২ পিএম, ২৩ জুন ২০২১

এক কাঁঠালের ওজন ৬৫ কেজি! বিশালাকৃতির এ কাঁঠালকে ঘিরে গত দুদিন ধরে ছিল ক্রেতা আর উৎসুক জনতার ভিড়। অবশেষে কাঁঠালটি বিক্রি হলো দুই হাজার তিনশ টাকায়।

কিশোরগঞ্জ শহরের পুরানথানা এলাকার ইসলামিয়া সুপার মার্কেটের এক মোবাইল ব্যবসায়ী বুধবার (২৩ জুন) দুপুরে কাঁঠালটি কিনে নেন।

সোমবার (২১ জুন) কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার মহিনন্দ ইউনিয়নের হাজরাহাটি গ্রামের বাসিন্দা ও পুরানথানা এলাকার ফল ব্যবসায়ী উজ্জ্বল মিয়া কাঁঠালটি বিক্রির জন্য পুরানথানা বাজারে নিয়ে আসেন। এর আগে নরসিংদীর বেলাব উপজেলার বিল্লালের মোড় এলাকার এক ব্যক্তির কাছ থেকে তিনি কাঁঠালটি কেনেন।

উজ্জ্বল মিয়া বলেন, ‘আমি মূলত কাঁঠাল ব্যবসায়ী না। অন্য ফলের ব্যবসা করি। বেলাব এলাকায় একটি গাছে বড় বড় ছয়টি কাঁঠাল দেখতে পাই। এরপর মালিকের সঙ্গে যোগাযোগ করে সবচেয়ে বড় কাঁঠালটি কিনে আনি। কয়েকজন মিলে বিশেষ কৌশলে গাছ থেকে কাঁচা কাঁঠালটি নামানো হয়। দুদিন ধরে বিক্রির জন্য পুরানথানা বাজারে রাখা হয়। অবশেষে কাঁঠালটি বিক্রি করতে পেরেছি। এটা আমার জীবনে স্মরণীয় হয়ে থাকবে।’

jagonews24

স্থানীয়রা জানান, বিক্রি হওয়ার আগ পর্যন্ত ৬৫ কেজি ওজনের কাঁঠাল সচরাচর দেখা যায় না। তাই কাঁঠালটি দেখতে পুরানথানা এলাকায় অসংখ্য মানুষ ভিড় করেন।

করিমগঞ্জ উপজেলার আশুতিয়াপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হাদিউল ইসলাম কাঞ্চন বলেন, ‘বড় কাঁঠালের কথা শুনে দেখতে এসেছি। কেনার ইচ্ছা ছিল। কিন্তু একা এতো বড় কাঁঠাল কিনে বাড়িতে নেয়ার সাহস পাইনি।’

কাঁঠালটি কত টাকায় কেনা হয়েছিল তা জানাননি বিক্রেতা আবুল হোসেন।

নূর মোহাম্মদ/এসআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]