জরিমানা নয়, খাদ্য সামগ্রী দিয়ে অটোচালকদের বাড়ি পাঠালেন ইউএনও

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি পিরোজপুর
প্রকাশিত: ০৩:৪৯ পিএম, ২৪ জুলাই ২০২১

বিধিনিষেধের মধ্যেও বেঁচে থাকার তাগিদে অটোরিকশা নিয়ে রাস্তায় বের হওয়া চালকদের জরিমানার বদলে খাদ্য সহায়তা দিয়েছেন পিরোজপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বশির আহমেদ।

শনিবার (২৪ জুলাই) পৌর শহরের বিভিন্ন স্থানে ঘুরে অটোরিকশা চালকদের মাঝে সদর উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে এ খাদ্য সহায়তা দেয়া হয়। এসময় তাদের ১০ কেজি চাল, এক কেজি ডাল, আলু, পেঁয়াজ, তেল ও লবণ দেয়া হয়।

এরপর তাদের বাড়ি পাঠিয়ে দেয়া হয়।

jagonews24

জানা যায়, করোনা সংক্রমণ রোধে দেশব্যাপী চলা বিধিনিষেধের দ্বিতীয়দিনে সদর উপজেলার পৌর এলাকাসহ বিভিন্ন এলাকায় কিছু অটোরিকশা চালক ও রিকশাচালককে গাড়ি চালাতে দেখা যায়। বিধিনিষেধ মেনে চলায় উৎসাহিত করতে তাদের খাদ্য সামগ্রী দিয়ে বাড়ি থেকে বের হতে নিষেধ করা হয়।

ওইদিন সকাল থেকে ইউএনও মো. বশির আহম্মেদের নেতৃত্বে পৌর এলাকার পাড়েরহাট রোড, রানীপুর, বাসস্ট্যান্ডসহ বিভিন্ন এলাকায় প্রায় শতাধিক অটোচালককে এ খাদ্য সহায়তা দেয়া হয়।

jagonews24

খাদ্য সহায়তা পাওয়া অটোচালক উপজেলার ভাইজোড়া গ্রামের আব্দুল জাফর শেখ বলেন, অটোরিকশা চালিয়ে করোনা সংক্রমিত হওয়ার ঝুঁকি তো থাকেই। কিন্তু পেটের দায়ে অটোরিকশা নিয়ে রাস্তায় নেমেছি। ইউএনও স্যারের খাদ্য সহায়তার কারণে পরিবার নিয়ে বাড়িতে থাকতে পারবো। এখন আর রাস্তায় নামা লাগবে না।

ইউএনও বশির আহমেদ বলেন, আমরা যে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করি তার উদ্দেশ শুধু জরিমানাই করাই নয়, মানুষকে সচেতন করাও। যারা অটো চালায় তারা বেশিরভাগই অস্বচ্ছল। তাই প্রথমেই জরিমানা করলে তারা আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবেন। তাই তাদের জরিমানা না করে বিধিনিষেধ মানতে উৎসাহিত করার জন্য এক সপ্তাহের খাদ্য সামগ্রী দিয়ে বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়া হয়। যাতে তারা আগামী এক সপ্তাহ খাদ্য নিয়ে কোনো সমস্যায় না পড়েন।

এসএমএম/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]