সিরাজগঞ্জে গৃহকর্মীকে মারধরের ঘটনায় ব্যাংক কর্মকর্তা গ্রেফতার

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সিরাজগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৬:৩৯ পিএম, ২৬ জুলাই ২০২১
প্রতীকী ছবি

রাস্তায় জনসম্মুখে নূরজাহান নামের এক গৃহকর্মীকে মারধর ও শ্লীলতাহানির অভিযোগে করা মামলায় সিরাজগঞ্জে আরাফাত শাকিল (৩৮) নামে এক ব্যাংক কর্মকর্তাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

রোববার (২৫ জুলাই) রাতে শহরের রহমতগঞ্জ মহল্লার ৪নং গলির নিজ বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার আরাফাত শাকিল ওই মহল্লার শওকত আলীর ছেলে। তিনি জনতা ব্যাংক এসবি ফজলুল হক রোড শাখার ব্যবস্থাপক হিসেবে কর্মরত।

সিরাজগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. বাহাউদ্দীন ফারুকী জানান, নূরজাহান তুর্কী (৫৯) নামে এক গৃহকর্মীকে রাস্তায় মারধরের অভিযোগে আরাফাত শাকিল ও তার বোন জান্নাতুল নাঈম সাথীকে (৩৪) আসামি করে থানা মামলা হয়েছে। মামলার প্রধান আাসামি আরাফাত শাকিলকে রাতেই গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, নির্যাতিত গৃহকর্মী নূরজাহান খাতুন তুর্কী উল্লেখ করেন, জান্নাতুল নাঈম সাথী বেলকুচিতে সরকারি চাকরি করেন। আটমাস আগে তার সরকারি কোয়ার্টারে মাসিক ছয় হাজার টাকা বেতনে গৃহকর্মীর কাজ নেন তিনি। কিন্তু সেখানে সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত কাজ করানো হলেও ঠিকমতো খাবার দেয়া হতো না। এমনকি গৃহকর্তী জান্নাতুল নাঈম সাথী সবসময়ই গালমন্দ করতেন। ১০ দিন পর তিনি কাজ করতে না চাইলে বেতন না দিয়েই বাসা থেকে বের করে দেয়া হয়। এ ঘটনার জেরে গত ২০ জুলাই শহরের রহমতগঞ্জ ৪নং গলির একটি বাসায় কাজ করতে যাওয়ার পথে নূরজাহানের উপর অতর্কিত হামলা চালায় জান্নাতুল নাঈম সাথীর বড় ভাই ব্যাংক কর্মকর্তা আরাফাত শাকিল। এ সময় তাকে ছাতা দিয়ে বেদম মারধর করে পরনের পোশাক টেনে ছিঁড়ে ফেলা হয়। একপর্যায়ে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে হুমকি দিতে দিতে চলে যায় আরাফাত শাকিল। পরে এলাকাবাসী তাকে হাসপাতালে ভর্তি করে। হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে ফিরে রোববার (২৫ জুলাই) রাতে থানায় মামলা করেন নূরজাহান খাতুন তুর্কি। এ ঘটনায় রাতে শহরের রহমতগঞ্জ মহল্লার নিজ বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

ইউসুফ দেওয়ান রাজু/এএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]