শিশুদের ঝগড়ার জেরে দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষ, আহত অর্ধশত

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি হবিগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৮:৩৮ এএম, ০২ আগস্ট ২০২১

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে শিশুদের মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামের বাসিন্দাদের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ হয়েছে। প্রায় ২ ঘণ্টাব্যাপী চলা এ সংঘর্ষে উভয়পক্ষে শিশুসহ অর্ধশতাধিক আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে ১০ জনকে গুরুতর অবস্থায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গতকাল (রোববার) উপজেলার করগাঁও ইউনিয়নের করগাঁও ও সাকোয়া গ্রামবাসীর মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

সংঘর্ষের খবর পেয়ে নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ ডালিম আহমেদের নেতৃত্বে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। পরে অতিরিক্ত পুলিশ নিয়ে ২ ঘণ্টার চেষ্টায় পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে আসে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, সাকোয়া গ্রামের বেনু মিয়ার ছেলে সমির এবং করগাঁও গ্রামের নুরুল মিয়ার ছেলে টুটুল স্থানীয় একটি খালে মাছ ধরতে যায়। এ সময় তাদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। তাদের ঝগড়া থামাতে গিয়ে করগাঁও গ্রামের এক ব্যক্তি সাকোয়া গ্রামের শিশু সমিরকে চড় মারেন। এ খবর সাকোয়া গ্রামের লোকজনের কাছে পৌঁছালে তারা দেশীয় অস্ত্র নিয়ে করগাঁও গ্রামবাসীর উপর হামলা করে।

এরপর করগাঁও গ্রামবাসী মসজিদের মাইকে হামলার খবর ঘোষণা দিলে তাদের পক্ষে পার্শ্ববর্তী গুমগুমিয়া গ্রামের লোকজনও যোগ দেয়। পরে তারা একসঙ্গে হয়ে সাকোয়া গ্রামবাসীর উপর পাল্টা হামলা চালায়।

এ বিষয়ে নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ ডালিম আহমদ জানান, পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেছে। অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। উভয় গ্রামবাসীর মধ্যে সমঝোতার চেষ্টা করা হচ্ছে। বর্তমানে এলাকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

সৈয়দ এখলাছুর রহমান খোকন/এমএইচআর/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]