শায়েস্তাগঞ্জে রেলওয়ের সিগন্যাল ঘরে ফাটল, ধসে পড়ার শঙ্কা

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি শায়েস্তাগঞ্জ(হবিগঞ্জ)
প্রকাশিত: ১২:২৭ পিএম, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১

হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ রেলওয়ে জংশনের পুরাতন সিগন্যাল ঘরটি জরাজীর্ন হয়ে পড়ায় এতে বড় বড় ফাটল দেখা দিয়েছে। যেকোনো মুহূর্তে ঘরটি ধসেও পড়তে পারে।

ঘরটির পাশ ঘেঁষেই ঢাকা-সিলেট-চট্রগাম রেলপথ। ঘরটির পাশ দিয়ে শতশত মানুষও যাতায়াত করে। তাই যেকোনো মুহূর্তে ঘরটি ধসে পড়লে মারাত্মক দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

জানা যায়, ব্রিটিশ আমলে নির্মিত শায়েস্তাগঞ্জ রেলওয়ে জংশন। সেসময় রেলওয়ে সিগন্যাল ঘরটিসহ বিভিন্ন অফিস নির্মাণ করা হয় হবিগঞ্জের এই জংশনে। তবে বর্তমানে ডিজিটাল পদ্ধতির সিগন্যালে রেল যাতায়াত করার কারণে পুরাতন ঘরটি একেবারেই অকেজো হয়ে পড়ে আছে।

এ ব্যাপারে শায়েস্তাগঞ্জ রেলওয়ের উপ-সহকারী প্রকৌশলী (আই.ডাব্লিউ.আই) আশিকুর রহমান বলেন, রেল স্টেশনটি আধুনিকায়নের কাজ চলছে। এরই মধ্যে ঊর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেছি। হয়তো প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হতে পারে।

এ বিষয়ে শায়েস্তাগঞ্জ রেলওয়ে জংশনের সিগন্যাল ইনচার্জ (এমএস) তারিফ খান বল বলেন, আমরা এখন ডিজিটাল পদ্ধতিতে সিগন্যালের কাজ চালিয়ে নিচ্ছি। সেহেতু সিগন্যাল ঘরটি আমাদের কোনো কাজে আসছে না। এটি একটি ঝুঁকিপূর্ণ ঘর। যেকোনো মুহূর্তে অঘটন ঘটতে পারে। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবগত করা আছে।

এ ব্যাপারে শায়েস্তাগঞ্জ রেলওয়ে জংশনের স্টেশনমাস্টার এ বি এম সাইফুল ইসলাম বলেন, আসলে আমরা এখন আধুনিক পদ্ধতিতে ট্রেন পরিচালনা করছি। সে কারণে এ ঘরটি আমাদের কোনো প্রয়োজন নেই। যেহেতু ঘরে ফাটল দেখা দিয়েছে তাই সরিয়ে ফেলাই উত্তম। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বিষয়টি বিবেচনায় আনবেন বলে মনে করি।

কামরুজ্জামান আল রিয়াদ/এমএইচআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]