জয়পুরহাটে স্কুলছাত্রী অপহরণ-ধর্ষণ মামলায় ৬০ বছরের কারাদণ্ড

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি জয়পুরহাট
প্রকাশিত: ০৬:০১ পিএম, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

জয়পুরহাট সদর উপজেলার ধারকী বড়াইল পাড়ায় নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে অপহরণ ও ধর্ষণ মামলায় মোমিন আকন্দ (২৫) নামের এক যুবককে ৬০ বছরের কারাদণ্ড ও ১২ লাখ টাকা জরিমানা করেছেন আদালত। জরিমানা অনাদায়ে তাকে আরও ১২ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে জয়পুরহাট নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. রুস্তম আলী জনাকীর্ণ আদালতে এ রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত মোমিন আকন্দ জয়পুরহাট সদর উপজেলার বম্বু ইউনিয়নের ধারকী বড়াইল পাড়ার বাসিন্দা মামুন আকন্দের ছেলে।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায়, মোমিন আকন্দ ওই ছাত্রীকে প্রায়ই কুপ্রস্তাব দিয়ে আসতেন। ২০১৮ সালের ৩ সেপ্টেম্বর স্থানীয় স্কুল গেটের সামনে থেকে আসামি মোমিন ও তার ছয় সহযোগী ওই ছাত্রীকে অপহরণ করে মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যান। পরে তাকে ধর্ষণ করা হয়। এ ঘটনায় স্কুলছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে ৫ সেপ্টেম্বর জয়পুরহাট থানায় ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

মামলার তিন মাস পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে মেয়েটিকে উদ্ধার করে। পরে দীর্ঘ তদন্ত শেষে ২০১৮ সালের ৩১ ডিসেম্বর মোমিনকে একমাত্র আসামি দেখিয়ে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে পুলিশ। বাকি অভিযুক্তদের মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

দীর্ঘ শুনানি ও সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে মঙ্গলবার দুপুরে আদালত মোমিন আকন্দকে ৩০ বছর কারাদণ্ড ও সাত লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও সাত বছরের কারাদণ্ড; ধর্ষণ ধারায় ৩০ বছর কারাদণ্ড ও ১০ লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন আদালত।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট ফিরোজা চৌধুরী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

রাশেদুজ্জামান/এসআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]