ফোনে ঝগড়ার পর শিশুকে নিয়েই ট্রেনের নিচে ঝাঁপ গৃহবধূর

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি পঞ্চগড়
প্রকাশিত: ০৯:৫০ পিএম, ০৯ অক্টোবর ২০২১

পঞ্চগড়ে কোলের সন্তানকে নিয়ে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন এক গৃহবধূ। আহত অবস্থায় শিশুসহ তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শনিবার (৯ অক্টোবর) পঞ্চগড় বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম রেলওয়ে স্টেশনের পাশে কমলাপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

২৬ বছর বয়সী ওই গৃহবধূ দেবীগঞ্জ উপজেলার সোনাহার এলাকার বাসিন্দা।

স্থানীয়রা জানান, তিন মাস বয়সী মেয়েকে কোলে নিয়ে স্টেশনের পাশে বসে মোবাইল ফোনে কথা বলছিলেন ওই গৃহবধূ। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনটি ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়। এর ঠিক তিন মিনিটের মাথায় সন্তানকে নিয়ে ট্রেনের সামনে ঝাঁপ দেন ওই নারী।

শুরুতে গতি কম থাকায় ট্রেনটি থামাতে সক্ষম হন চালক। তবু এর ধাক্কায় গুরুতর আহত হন ওই গৃহবধূ। কোলে থাকা শিশুটি লাইনের ওপর ছিটকে পড়ে। আহত শিশুসহ গৃহবধূকে প্রথমে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতাল এবং পরে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

স্থানীয়দের ধারণা, কোলের শিশুকে নিয়ে তিনি মোবাইল ফোনে কারও সঙ্গে ঝগড়া করছিলেন। তবে কার সঙ্গে এবং কী নিয়ে ঝগড়া হয়েছে তা জানা যায়নি।

স্থানীয় শিক্ষক মাসুদ পারভেজ জাগো নিউজকে বলেন, হাসপাতালে ওই গৃহবধূর কাছেই তার নাম জানা গেছে। মোবাইল ফোনের সর্বশেষ ডায়ালকৃত নম্বরটি তার স্বামীর নম্বর। সম্ভবত তিনি স্বামীর সঙ্গে কথা বলছিলেন।

বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম স্টেশনের সহকারী স্টেশনমাস্টার মো. নাজমুল হোসেন জাগো নিউজকে বলেন, এক নারী শিশুকে নিয়ে ট্রেনের সামনে ঝাঁপ দিয়েছেন। প্রথমে গতি কম থাকায় চালক ট্রেনটি থামাতে সক্ষম হয়েছেন। দ্রুত সেই নারী এবং শিশুকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফরহাদ হোসেন বলেন, গৃহবধূর মোবাইল ফোনের সূত্র ধরে তার পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। খবর পেয়ে তার স্বামীসহ পরিবারের লোকজন পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে আসেন। ধারণা করা হচ্ছে, পারিবারিক কলহে স্বামীর সঙ্গে ঝগড়ার কারণে তিনি এমনটা করেছেন।।

সফিকুল আলম/এসজে/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]