শিবগঞ্জে আ’লীগ-জাপার প্রার্থীর সমর্থকদের সংর্ঘষ, আহত ১০

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বগুড়া
প্রকাশিত: ১২:০০ এএম, ২৭ অক্টোবর ২০২১

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বগুড়ার শিবগঞ্জের কিচক ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থী ও জাতীয় পার্টির মনোনিত প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এ ঘটনায় উভয়পক্ষের ১০ জন আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) রাত সাড়ে ১০টার দিকে কিচক ইউনিয়নের সোনারপাড়া নামক স্থানে এ ঘটনা ঘটে।দ্বিতীয় ধাপে আগামী ১১ নভেম্বর এই ইউনিয়নের নির্বাচন আনুষ্ঠিত হবে।

জানা গেছে, রাত সাড়ে ১০টার দিকে কিচক ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থী এবিএম নাজমুল কাদির শাহজাহান চৌধুরীর সমর্থকরা ওই ইউনিয়নের গাদুরহাট বাজারে গণসংযোগ শেষে মোটরসাইকেল নিয়ে কিচক বাজারে ফিরছিলেন। তারা সোনারপাড়ায় পৌঁছালে জাতীয় পার্টির মনোনিত চেয়ারম্যান প্রার্থী জামিরুল ইসলাম রনির সমর্থকদের সঙ্গে তাদের বাগবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে উভয়পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে। এতে উভয়পক্ষের ১০ জন নেতাকর্মী আহত হন।

আহতরা হলেন, জাপা চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থক মোস্তাফিজুর রহমান জোশেক, রেজাউল করিম, সনি মিয়া, রাশেদ মন্ডল, সেলিম মিয়া, আওয়ামী লীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থক মাছুম প্রধান, মহসিন আলী, আ. হান্নান, রাজু মিয়া, মিঠু মিয়া। আহতরা শিবগঞ্জ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এ বিষয়ে এবিএম নাজমুল কাদির শাহজাহান চৌধুরী বলেন, আমার নেতাকর্মীরা গাদুরহাট থেকে কিচকে ফেরার পথে সোনারপাড়া বাজারে পৌঁছালে প্রতিপক্ষের সমর্থকদের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে তারা মারপিট করেন। এতে আমাদের পাঁচ কর্মী আহত হয়েছেন।

এ ব্যাপারে জাপা সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী জামিরুল ইসলাম রনি বলেন, গাদুরহাটে আমার নির্বাচনী অফিসে গিয়ে প্রতিপক্ষের সমর্থকরা বিভিন্ন কুরুচিপূর্ণ কথাবার্তা বলতে থাকেন। এর জের ধরে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে সোনারপাড়া বাজারে হঠাৎ করে আমার নেতাকর্মীদের ওপর হামলা চালিয়ে আহত করেন।

শিবগঞ্জ থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম এ প্রসঙ্গে বলেন, মঙ্গলবার কিচকের ঘটনায় দুই পক্ষই পৃথকভাবে লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ইএ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]