সরাইলে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় ১৬ জনকে আ’লীগ থেকে বহিষ্কার

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ব্রাহ্মণবাড়িয়া
প্রকাশিত: ০৫:১৯ এএম, ২৭ নভেম্বর ২০২১

ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরাইল উপজেলায় ১৬ জনকে দলীয় পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। নৌকা প্রতীকের বিরুদ্ধে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করায় তাদের বহিষ্কার করা হয়।

শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) রাতে জেলা আওয়ামী লীগের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। রাতে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আল মামুন সরকার বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর বিরুদ্ধে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় তাদের দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। সরাইল উপজেলা আওয়ামী লীগের লিখিত সুপারিশের পরিপ্রেক্ষিতে জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে জরুরিভিত্তিতে এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

বহিষ্কৃত বিদ্রোহী প্রার্থীরা হলেন- সরাইল সদর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে চশমা প্রতীকের বিদ্রোহী প্রার্থী আব্দুল জব্বার, আনারস প্রতীকের বিদ্রোহী প্রার্থী হাজী ইউনুছ মিয়া (ইনু মিয়া), পানিশ্বর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে মোটরসাইকেল প্রতীকের বিদ্রোহী প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান মিস্টার, শাহজাদাপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আনারস প্রতীকের বিদ্রোহী প্রার্থী আঙ্গুর মিয়া খাদেম, মোটরসাইকেল প্রতীকের বিদ্রোহী প্রার্থী রফিকুল ইসলাম খোকন, শাহবাজপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আনারস প্রতীকের বিদ্রোহী প্রার্থী মাসুদ রানা রুবেল, অটোরিকশা প্রতীকের বিদ্রোহী প্রার্থী রাজী আহমেদ রাজ্জি, নোয়াগাও ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আনারস প্রতীকের বিদ্রোহী প্রার্থী আফতাব মিয়া, টেলিফোন প্রতীকের বিদ্রোহী প্রার্থী এমরান মিয়া, অটোরিকশা প্রতীকের বিদ্রোহী প্রার্থী কাজল চৌধুরী, ঘোড়া প্রতীকের বিদ্রোহী প্রার্থী সাইমন মিয়া, পাকশিমুল ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ঘোড়া প্রতীকের বিদ্রোহী প্রার্থী আলফু মিয়া, চশমা প্রতীকের বিদ্রোহী প্রার্থী আবদুল্লাহ্ মিয়া, দুটি পাতা প্রতীকের বিদ্রোহী প্রার্থী কুতুবুল আলম, অটোরিকশা প্রতীকের বিদ্রোহী প্রার্থী আবুল কাসেম, চুন্টা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আনারস প্রতীকের বিদ্রোহী প্রার্থী হুমায়ুন কবির।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আওয়ামী লীগ এবং দলের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনভুক্ত উল্লেখিত ব্যক্তিরা এসব ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের বিরুদ্ধে বিদ্রোহী প্রার্থী হন। দলের পক্ষ থেকে তাদের বারবার অনুরোধ করা সত্ত্বেও তারা মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার না করে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে দলের শৃঙ্খলা ভঙ্গ করেছেন। আওয়ামী লীগের গঠনতন্ত্রের ৪৭ ধারা মোতাবেক তাদের প্রত্যেককে দল থেকে বহিষ্কার করে দলের প্রাথমিক সদস্য পদ থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কারের জন্য কেন্দ্রীয় কমিটিতে সুপারিশ করা হয়েছে।

রোববার (২৮ নভেম্বর) ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার ৯টি ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

আবুল হাসনাত মো. রাফি/এমএএইচ/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]