স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থককে মারধর, মুখে গুজে দেওয়া হলো কলা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নাটোর
প্রকাশিত: ০৫:৪২ পিএম, ২৭ নভেম্বর ২০২১

নাটেরের বাগাতিপাড়ায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থককে মারধরের অভিযোগ উঠেছে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের বিরুদ্ধে। এ সময় ওই ব্যক্তিকে নৌকা প্রতীকের লিফলেট বিতরণে বাধ্য করা হয়।

মারধরের একটি ভিডিও চিত্র শনিবার (২৭ নভেম্বর) বিকেলে জাগো নিউজের কাছে আসে।

এতে দেখা যায়, উপজেলার জামনগর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী আব্দুল কুদ্দুসের প্রচারে বাগাতিপাড়ায় যান উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপক আবুল হোসেনসহ কয়েকজন।

এ সময় জামনগর বাজারে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী অধ্যাপক শাহআলমের (আনারস প্রতীক) নির্বাচনী প্রচার শেষে বাড়ি ফিরছিলেন মাহাবুর রহমান ও আহম্মদ আলী। তখন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপক আবুল হোসেনের উপস্থিতিতে কয়েকজন মাহাবুর রহমানকে মোটরসাইকেল থেকে নামিয়ে চড়-থাপ্পড় দিয়ে ধরে আনেন। এরপর আবুল হোসেন তাকে চড় দেওয়ার চেষ্টা করেন। তার হাতে থাকা কলা জোর করে মাহাবুরের মুখে গুজে দেন।

অধ্যাপক শাহআলম অভিযোগ করে বলেন, নৌকার প্রার্থী আমার নির্বাচনে বাধা সৃষ্টি করছে। নানাভাবে ভয়ভীতি দেখাচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় আমার কর্মী মাহাবুর রহমানকে মারধর করা হয়েছে। নৌকার কর্মী-সমর্থকরা আমার নির্বাচনী কার্যালয়েও ভাঙচুর চালিয়েছে।

এ বিষয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপক আবুল হোসেন বলেন, মারধরের ঘটনা সঠিক নয়। আমি তাকে আদর করে কলা খাইয়েছি। যা হয়েছে, ভালোই হয়েছে। আপনারা ভাইরাল করে দেন।

এ বিষয়ে পুলিশ সুপার বলেন, একটি অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন সম্পন্নের জন্য প্রশাসন তৎপর আছে। কারও কোনো সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড বরদাস্ত করা হবে না।

রেজাউল করিম রেজা/এসজে/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]