বাবা-মায়ের পর এবার চেয়ারম্যান হলেন মেয়ে

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সাতক্ষীরা
প্রকাশিত: ১১:০৬ এএম, ২৯ নভেম্বর ২০২১

গত নির্বাচনে সাতক্ষীরার কালীগঞ্জ উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন জাতীয় পার্টির নেতা মোশারফ হোসেন। ২০১৮ সালে দুর্বৃত্তদের হাতে নিহত হন তিনি। এরপর উপ-নির্বাচনে বিজয়ী হন তার স্ত্রী আকলিমা খাতুন। সেই ইউপিতে এবার নির্বাচনে জাতীয় পার্টির লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থী হয়েছিলেন তাদের মেয়ে সাফিয়া পারভীন।

গতকাল রোববার (২৮ নভেম্বর) তৃতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৩৬৩ ভোট বেশি পেয়ে জয়লাভ করেন তিনি।

কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ জাগো নিউজকে জানান, এ ইউপিতে লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থী সাত হাজার ২৩৮ ভোট, ঘোড়া প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী ছয় হাজার ৮৭৫ ভোট ও নৌকা প্রতীকের প্রার্থী পেয়েছেন ৩৮৫ ভোট। 

সাফিয়া পারভীন জাগো নিউজকে বলেন, এ জয় ইউনিয়নবাসীর। আমার বাবা কৃষ্ণনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ছিলেন। ২০১৮ সালে ৮ সেপ্টেম্বর রাত ১১টার দিকে কৃষ্ণনগর বাজারে যুবলীগ কার্যালয়ের সামনে তাকে নির্মমভাবে গুলি করে হত্যা করা হয়। ২০১৯ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি উপ-নির্বাচনে লাঙ্গল প্রতীকে জয়লাভ করেন আমার মা আকলিমা খাতুন লাকী। এবার আমি জাতীয় পার্টির লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে বিজয়ী হয়েছি।

তিনি বলেন, আমাকে সুযোগ দেওয়ার জন্য ইউনিয়নবাসীর প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। একইসঙ্গে জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নেতাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। তারা আমার পরিবারে প্রতি আস্থা রেখেছেন। আমি এ ইউনিয়নকে একটি মডেল ইউনিয়ন হিসেবে গড়তে চাই। আমার বাবার হত্যার বিচার চলমান রয়েছে। আমি সেই মামলার বাদী। আমি বারবার হত্যকারীদের টার্গেট হয়েছি। সঠিকভাবে দায়িত্ব পালনে আমি প্রশাসনসহ সবার সহযোগিতা চাই।

আহসানুর রহমান রাজীব/এফএ/জিকেএস/এমকেআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]