অপহরণের পর চাঁদা দাবি, টাকা পেয়েও অপহৃত শিশুকে হত্যা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নরসিংদী
প্রকাশিত: ০১:২০ পিএম, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১

অপহরণের পাঁচদিন পর নরসিংদীর রায়পুরায় শিশু ইয়ামিনের (৮) অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার (০৩ ডিসেম্বর) সকালে উপজেলার উত্তরবাখননগর গ্রামের একটি ডোবার পাশের ক্ষেত থেকে পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে।

নিহত ইয়ামিন উত্তর বাখরনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণীর শিক্ষার্থী। সে উত্তর বাখরনগর গ্রামের মধ্যপাড়ার প্রবাসী মো. জামান মিয়ার ছেলে।

নিহত শিশুর মা সামছুন্নাহার জানান, ২৮ নভেম্বর সকাল ১০টার দিকে ছেলেকে বাড়িতে রেখে ইউপি নির্বাচনে ভোট দিতে যান। ভোট দিয়ে দুপুর ১২টার দিকে বাড়ি ফেরেন। কিন্তু বাড়িতে ছেলেকে পাননি। পরে বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করেও তার কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি। পরে এলাকায় ও অশপাশের গ্রামে মাইকিং করা হয়। এরপর ইয়ামিনের মায়ের মোবাইলে ফোন করে ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করা হয়। দাবির প্রেক্ষিতে কিছু টাকা বিকাশের মাধ্যমে অপহরণকারীদের দেওয়া হয়। শুক্রবার (০৩ ডিসেম্বর) সকালে ইয়ামিনকে ফেরত দেওয়ার কথা ছিল। সকালে ইয়ামিনদের বাড়ির অদূরে ধানক্ষেতে একটি অর্ধগলিত মরদেহ পড়ে থাকতে দেখেন এলাকাবাসী। পরে ইয়ামিনের স্বজনরা সেখানে গিয়ে তাকে শনাক্ত করেন।

খবর পেয়ে রায়পুরা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। এদিকে গত ১ ডিসেম্বর শিশু ইয়ামিনকে অপহরণের অভিযোগে রায়পুরা থানায় মামলা দায়ের করেন তার নিহতের মা সামছুন্নাহার।

রায়পুরা থানার ওসি গোবিন্দ সরকার সাংবাদিকদের জানান, গত ১ ডিসেম্বর একটি অপহরণ মামলা দায়ের হয়। এ নিয়ে তদন্ত চলছিল। আজ (শুক্রবার) সকালে ওই শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

সঞ্জিত সাহা/কেএসআর/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]