সরকার নারীদের ওপর বেশি নির্যাতন করছে: আফরোজা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ফেনী
প্রকাশিত: ০৮:৪০ পিএম, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১

মহিলা দলের কেন্দ্রীয় সভাপতি আফরোজা আব্বাস বলেছেন, অবৈধ ও ভোট চোর সরকার নিজে নারী হয়েও নারীদের সবচেয়ে বেশি নির্যাতন করছেন। দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় ও সর্ববৃহৎ রাজনৈতিক দল বিএনপি। এ দলের প্রাণ হচ্ছে খালেদা জিয়া। আর তার প্রাণ ফেনী জেলা। ফেনীর মানুষ নির্ভীক ও সাহসী হওয়ার কারণে নানা বাধার পরও আমরা কর্মী সমাবেশ করতে পেরেছি।

মঙ্গলবার (৭ ডিসেম্বর) শহরের রামপুর পাটোয়ারী বাড়ির সামনে আয়োজিত ফেনী জেলা মহিলা দলের কর্মী সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

আফরোজা আব্বাস বলেন, সরকার ও প্রশাসন আমাদের প্রোগ্রামস্থল পরিবর্তন করেছে। আমরা তাদের দেশ পরিবর্তন করে দেবো।

jagonews24

ফেনী জেলা বিএনপির সদস্য সচিব আলাল উদ্দিন আলালের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনু, ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রশিদ হাবীব, যুবদলের সহসভাপতি ইউসুফ বিন জলিল, মোয়ানেম মুন্না, মোশাররফ হোসেন দিপ্তি ও যুগ্ম সম্পাদক মাসুদ আহমেদ মিলন।

এ সময় ফেনী জেলা বিএনপির আহ্বায়ক শেখ ফরিদ বাহার, যুগ্ম আহ্বায়ক আনোয়ার হোসেন পাটোয়ারী, জেলা মহিলা দলের সাবেক সভাপতি জুলেখা আক্তার ডেইজিসহ জেলা ও উপজেলা মহিলা দলের নেতৃবৃন্দ ও কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে, ফেনী শহরের শহীদ শহীদুল্লা কায়সার সড়কের ব্যতিক্রম কমিউনিটি সেন্টারে পূর্ব ঘোষিত সমাবেশ স্থলে সরকার দলীয় শতাধিক লোক জড়িত হওয়ায় সংঘাত এড়াতে রামপুরে কর্মী সমাবেশ করতে বাধ্য হয় মহিলা দল। রাতে শহরের একটি আবাসিক হোটেলে রাত যাপন করতে আসা কেন্দ্রীয় বিএনপির মহিলা নেত্রীদের অন্য জায়গায় থাকতে বাধ্য করে পুলিশ।

জেলা মহিলা দলের সভাপতি জুলেখা আক্তার ডেইজী বলেন, সরকার দলীয় নেতাকর্মীরা ব্যতিক্রম কমিউনিটি সেন্টারের সামনে আমাদের ভেন্যুস্থলে উপস্থিত হয়ে ব্যানার ফেস্টুন ছিঁড়ে চারদিক ঘিরে রাখে। সংঘাত এড়াতে আমরা প্রোগ্রামস্থল পরিবর্তন করতে বাধ্য হই। রাতে শহরের বেস্ট ইন রেস্টুরেন্টে নিরাপত্তার অজুহাত দিয়ে আমাদের কেন্দ্রীয় নেত্রীদের ঘুম থেকে তুলে রেস্টুরেন্ট থেকে বের করে দেওয়া হয়।

নুর উল্লাহ কায়সার/এসজে/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]