ঢাবি অধ্যাপক হত্যা: আনারুলের ১০ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি গাজীপুর
প্রকাশিত: ০৪:০২ পিএম, ১৫ জানুয়ারি ২০২২
গ্রেফতার আনারুল ইসলাম (লাল জ্যাকেট পরিহিত), ইনসেটে নিহত ঢাবি অধ্যাপক সাইদা গাফফার

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক সাইদা গাফফারকে হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার কন্ট্রাক্টর আনারুলের ১০ দিনের রিমান্ড চেয়েছে গাজীপুরের কাশিমপুর থানা পুলিশ।

শনিবার (১৫ জানুয়ারি) দুপুরে গাজীপুর আদালতে রিমান্ডের আবেদন জানানো হয়। কাশিমপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুবে খোদা জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, গ্রেফতার আনারুল গাইবান্ধার সাদুল্লাহপুর থানার বুর্জুগ জামালপুর গ্রামের আনসার আলীর ছেলে। অধ্যাপক সাইদা গাফফারকে হত্যার পর তিনি তার গ্রামের বাড়িতে আত্মগোপন করেন। সেখান থেকে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে

ওসি বলেন, গ্রেফতার আনারুল ইসলাম পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে স্বীকার করেছেন। তবে কী কারণে এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে, হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে আর কারা জড়িত এবং নিহতের বাড়ি থেকে কী কী জিনিস তিনি লুট করেছেন তা জানার জন্য আদালতের কাছে ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করা হয়েছে। একই সঙ্গে তিনি আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেবেন।

নিহত সাইদা গাফফার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পুষ্টিবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ছিলেন। তিনি ২০১৬ সালে অবসর গ্রহণ করেন। তার প্রয়াত স্বামী জহিরুল হকও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ছিলেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কাশিমপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) দীপঙ্কর রায় জাগো নিউজকে বলেন, হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক নিহত সাইদা গাফফারের ছেলে সাউথ ইফখার বিন জহির আনারুলকে আসামি করে কাশিমপুর থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। তবে এ ঘটনায় আর কেউ জড়িত কি না তা জিজ্ঞাসাবাদে জানা যাবে।

মো. আমিনুল ইসলাম/এসজে/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]