বিস্ফোরক বোঝাই ভারতীয় ট্রাকে হেলপারের মরদেহ

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি বেনাপোল (যশোর)
প্রকাশিত: ০১:২০ পিএম, ১৭ জানুয়ারি ২০২২

বেনাপোল স্থলবন্দরে ভারত থেকে বিস্ফোরক নিয়ে আসা ট্রাক থেকে হেলপারের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তার নাম লিনগালা রাজামাল্লাহ (৪৩)। বাড়ি ভারতের অন্ধপ্রদেশের ধানাপল্লী ওয়ারংগাল গ্রামে।

এটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা সেটা নিয়ে বন্দর এলাকায় চলছে নানা আলোচনা সমালোচনা।

সোমবার (১৭ জানুয়ারি) সকালে বন্দরের ৩১ নম্বর শেডে রক্ষিত একটি বিস্ফোরক বোঝাই ট্রাক থেকে তার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পোর্ট থানা পুলিশ। এ ঘটনায় ট্রাকের চালক গুরুগু পোচায়াকে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। বিস্ফোরক নিয়ে আসা ওই ট্রাকের নম্বর এপি ২৪ টিসি-৩৪৮৮।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন নাভারণ সার্কেলের এএসপি জুয়েল ইমরান, বন্দরের উপ-পরিচালক আব্দুল জলিল ও মামুন কবির তরফদার, বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মামুন খান।

বেনাপোল বন্দরে কর্তব্যরত আনসারের পিসি আবুল কালাম আজাদ বলেন, কর্তব্যরত আনসার সদস্যদের মাধ্যমে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে দেখি সে তার নিজ ট্রাকে গলায় রশি দিয়ে ঝুলে আছে। পরে থানা ও বন্দর কর্তৃপক্ষকে আমরা বিষয়টি অবহিত করি।

বেনাপোল বন্দরের উপ-পরিচালক মামুন কবির তরফদার জানান, ভারত থেকে ১১টি ট্রাকে করে গত ১৫ জানুয়ারি বিস্ফোরক আমদানি করা হয়। তার মধ্যে বিস্ফোরকবাহী ট্রাকের একজন হেলপার অজ্ঞাত কারণে ট্রাকের মধ্যে আত্মহত্যা করেছেন বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য যশোর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি হিসেবে থানায় নিয়ে গেছে পুলিশ।

বেনাপোল পোর্ট থানার ওসি মামুন খান বলেন, ধারণা করা হচ্ছে কোনো অজ্ঞাত কারণে সে আত্মহত্যা করেছে। ওই গাড়ির চালক গুরুগু পোচায়াকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানা হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।

জামাল হোসেন/এফএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]