শাহজালালে ইমিগ্রেশনে ধর্ষণ মামলার আসামি গ্রেফতার

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি গাজীপুর
প্রকাশিত: ১১:০১ পিএম, ১৮ জানুয়ারি ২০২২

সিঙ্গাপুর যাওয়ার উদ্দেশে ঢাকার হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশন চ্যানেল পার হওয়ার সময় মো. রাব্বি (২৪) নামে এক ধর্ষণ মামলার আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

রাব্বি গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার গাজীপুর ইউনিয়নের নিজ মাওনা গ্রামের শামছুল হকের ছেলে। ধর্ষণের শিকার কিশোরী স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী।

মঙ্গলবার (১৭ জানুয়ারি) সকালে ইমিগ্রেশন পুলিশের হাতে তিনি গ্রেফতার হন। পরে তাকে শ্রীপুর থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

মামলা সূত্রে এবং কিশোরীর মামা জানান, মাওনা গ্রামের বাসিন্দা তার ভাগ্নি করোনাকালীন সময়েবাড়িতে থেকেই লেখাপড়া করতেন। ২০২০ সালের ২৬ নভেম্বর ভোরে তার মা ভিক্টিম কিশোরী ও ছোট ছেলেকে বাড়িতে রেখে ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন স্বামীর কাছে যান। এর তিনদিন পর ৩০ নভেম্বর রাতে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে বাইরে গেলে আগেই থেকেই ওঁৎ পেতে থাকা প্রতিবেশী রাব্বি, তার মুখ চেপে ধর্ষণ করে। ঘটনাটি কাউকে বললে হত্যার হুমকি দিয়ে চলে যায় রাব্বি। তারপরও সে ঘটনাটি স্বজনদের জানায়। কিন্তু স্থানীয় প্রভাবশালী কয়েক ব্যক্তি রাব্বির বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে না দিয়ে মীমাংসার জন্য চাপ দেয় এবং কালক্ষেপণ করে। এ তালবাহানা বুঝতে পেরে কিশোরীর মা বাদী হয়ে ২০২১ সালের ২৭ জানুয়ারি শ্রীপুর থানায় রাব্বির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) কামরুল হাসান জানান, মামলা দায়েরের পর অভিযুক্ত রাব্বি গা ঢাকা দেয়। বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়েও তাকে গ্রেফতার করা যায়নি। মামলা তদন্তকালে অভিযুক্ত রাব্বি বিদেশ চলে যাওয়ার পাঁয়তারা করছে জানা গেলে, তার পাসপোর্ট নম্বরসহ অন্যান্য তথ্য ইমিগ্রেশন পুলিশকে জানানো হয়। মঙ্গলবার সকাল পৌনে ৮টা টার দিকে রাব্বি বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে সিঙ্গাপুর যাওয়ার প্রস্তুতিকালে তাকে গ্রেফতার করে ইমিগ্রেশন পুলিশ। পরে ইমিগ্রেশন পুলিশ শ্রীপুর থানা পুলিশকে বিষয়টি অবগত করলে মঙ্গলবার বিকেলে ইমিগ্রেশন পুলিশের কাছ থেকে রাব্বি বুঝে নেওয়া হয়।

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খোন্দকার ইমাম হোসেন জানান, সিঙ্গাপুর যাওয়ার উদ্দেশে ঢাকার হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশন চ্যানেল পার হওয়ার সময় রাব্বি নামে এক ধর্ষণ মামলার গ্রেফতার করে থানায় হস্তান্তর করেছে ইমিগ্রেশন পুলিশ। তাকে বুধবার আদালতে পাঠানো হবে।

ফয়সাল আহমেদ/এমএএইচ/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]