পুনর্বাসন না করে উচ্ছেদ: পথে বসছে শত শত পরিবার

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি পটুয়াখালী
প্রকাশিত: ১১:০৮ এএম, ২২ জানুয়ারি ২০২২

পটুয়াখালীর লাউকাঠি নদীরপাড় সংলগ্ন খাস জমির সব স্থাপনা সরিয়ে নেওয়ার জন্য উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করছে জেলা প্রশাসন। শুক্রবার বেলা ১১টায় পটুয়াখালী সদর উপজেলা ভূমি কর্মকর্তা মো. শাহিন মাহমুদ এই উচ্ছেদ অভিযান শুরু করেন।

এ সময় পটুয়াখালী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামানসহ বিপুল পরিমাণ পুলিশ সদস্য উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে উচ্ছেদ অভিযানের প্রতিবাদে রাস্তায় নেমেছেন হাজারো নারী পুরুষ। লতা ইসলাম (32) বলেন, আমার জন্মের পর থেকে দেখেছি এখানে আমাদের ঘরবাড়ি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ভূমিহীনদের জন্য ঘর নির্মাণ করে দিচ্ছেন, আর আমরা নিজেরা ঘর স্থাপন করে বসে আছি সেগুলো ভেঙে আমাদের রাস্তায় নামিয়ে দিচ্ছে। একদিন আগে মাইকিং করেছে আমাদের এখান থেকে চলে যেতে হবে। কোনো নোটিশ দেয়নি। এত জরুরিভাবে ভেঙে আমাদের রাস্তায় কেন নামানো হলো আমরা সেটাই বুঝতে পারছি না। আমাদের পুনর্বাসন করুন, আমাদের থাকার জায়গা দিন, আমাদের এই জায়গা ছাড়া কোথাও থাকার মতো যায়গা নেই।

jagonews24

পরিবারগুলো বলছে, এখানকার ৫০০’র বেশি পরিবার ১৯৮৬ সাল থেকে জেলা প্রশাসন থেকে অস্থায়ী বন্দোবস্ত নিয়ে বসবাস করেছে। ২০১২ সাল থেকে জেলা প্রশাসনের বন্দবস্ত বন্ধ করে দেয়। এখন উচ্ছেদ করছে। একটু খালি জায়গা দিলে এই মাল-সামানা নিয়ে ঘর উঠিয়ে থাকতে পারি, রাস্তায় থাকা ছাড়া উপায় নেই।

পটুয়াখালী পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আলাউদ্দিন আলাল বলেন, আমার ওয়ার্ডের স্থায়ী বাসিন্দা হলো এই পরিবারগুলো। আমি তাদের জন্য অনেক অফিসে গিয়েছি যেন তাদের পুনর্বাসন করা হয়। অন্ততপক্ষে খালি জায়গা দেয়া হয় যেন তারা ঘর উঠিয়ে এই মহামারির মধ্যে থাকতে পারে। কিন্তু তারা আমাদের কোনো কথা রাখেনি।

পটুয়াখালী সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) শাহিন মাহমুদ বলেন, পটুয়াখালী জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে সরকারি খাস জমির অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। আমরা এর আগে তাদেরকে মাইকিং করে জানিয়ে দিয়েছি। এছাড়াও গতকাল তারা আমার অফিসে এসেছিল তখন আমি তাদেরকে জানিয়ে দিয়েছি সকল ধরনের অবৈধ স্থাপনা সরিয়ে নেওয়ার জন্য। ইতোমধ্যে অনেক পরিবার তাদের স্থাপনা সরিয়ে নিয়েছে। বাকি যেগুলো আছে সেগুলোতে আমরা উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করছি।

আব্দুস সালাম আরিফ/এফএ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]