বক্তব্য দেওয়ার সময় মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়লেন ব্যাংক কর্মকর্তা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কুড়িগ্রাম
প্রকাশিত: ০৮:২২ এএম, ২৩ জানুয়ারি ২০২২

কুড়িগ্রামের রাজারহাটে ধর্মীয় অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেওয়ার সময় হঠাৎ মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়লেন সোনালী ব্যাংকের কুড়িগ্রাম শাখার প্রিন্সিপাল অফিসের প্রধান কর্মকর্তা পলাশ চন্দ্র বর্মন (৩৮)।

শনিবার (২২ জানুয়ারি) রাতে রাজারহাট উপজেলার আদর্শ বিএল উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে আয়োজিত সনাতন ধর্মীয় অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেওয়ার সময় তার মৃত্যু হয়।

সোনালী ব্যাংক প্রিন্সিপাল অফিস কুড়িগ্রামের উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম-ইন চার্জ) ওয়াহেদুন্নবী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

পলাশ চন্দ্র বর্মনের বাড়ি লালমনিরহাট জেলার হাতিবান্ধা উপজেলার নওদাবাস এলাকায়।

সোনালী ব্যাংক কুড়িগ্রাম সূত্র জানায়, পলাশ চন্দ্র পেশায় সোনালী ব্যাংক কর্মকর্তা হলেও ধর্মীয় আলোচনায় পারদর্শী হওয়ায় বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠানে ডাক পেতেন তিনি। শনিবার সন্ধ্যায় একটি ধর্মীয় অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেওয়ার সময় হঠাৎ হার্ট অ্যাটাক হলে সভার আয়োজকরা তাকে দ্রুত কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান।

সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসক পরীক্ষা করে জানান, হার্ট অ্যাটাকে (হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে) ঘটনাস্থলেই পালাশের মৃত্যু হয়েছে।

নিহত পলাশের চাচাতো ভাই মৃদুল রায় জানান, পলাশ চন্দ্রের আগে থেকে হার্টের সমস্যা ছিল না। কীভাবে কি হয়ে গেলো আমরা বুঝতে পারলাম না।
শনিবার রাতেই নিহতের মরদেহ কুড়িগ্রাম থেকে নিজ বাড়ি লালমনিরহাটের নওদাবাসে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম-ইন চার্জ) ওয়াহেদুন্নবী বলেন, পলাশ একজন নিবেদিত ব্যাংক কর্মকর্তা ছিলেন। তার আকস্মিক ও অকাল মৃত্যুতে আমরা শোকাহত।

মাসুদ রানা/এফএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]