মসজিদের ৭ লাখ টাকা আত্মসাৎ, যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ব্রাহ্মণবাড়িয়া
প্রকাশিত: ০৭:৩৬ পিএম, ২৭ জানুয়ারি ২০২২
যুবলীগ নেতা সোহেল রানা মুন্সি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এক যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে মসজিদের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে মামলা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৭ জানুয়ারি) দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতে সদর উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সোহেল রানা মুন্সির বিরুদ্ধে মামলাটি করা হয়।

সদর উপজেলার সাদেকপুর ইউনিয়নের চিলোকূট গ্রামের মুন্সিবাড়ি শাহী জামে মসজিদ কমিটির সাধারণ সম্পাদক মো. ইকবাল বাদী হয়ে মামলাটি করেন।

মামলাটি তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানা পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক আফরিন আহমেদ হ্যাপী।

আসামি সোহেল রানা মুন্সি সদর উপজেলার সাদেকপুর ইউনিয়নের চিলোকূট গ্রামের বাসিন্দা।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, সদর উপজেলার সাদেকপুর ইউনিয়নের চিলোকূট গ্রামের বাসিন্দা ইসমাইল মুন্সি চিলোকূট মুন্সিবাড়ি শাহী জামে মসজিদ কমিটির কোষাধ্যক্ষ ছিলেন। তার বার্ধক্য ও অসুস্থতাজনিত কারণে ২০১৯ সালের জুন মাসে তার ছেলে যুবলীগ নেতা সোহেল রানা মুন্সিকে কোষাধ্যক্ষের দায়িত্ব দেওয়া হয়। এরপর মসজিদ ফান্ডের ৭ লাখ ৯ হাজার টাকা নিজের কাছে নিয়ে নেন সোহেল।

এজাহারে আরও বলা হয়, মসজিদের পুনর্নির্মাণ কাজ শুরু হলে কমিটির লোকজন সোহেলের কাছে ফান্ডের টাকা চান। তিনি টাকা না দিয়ে টালবাহানা করতে থাকেন। সর্বশেষ মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) কমিটির লোকজন টাকা ফেরত দিতে বললে মসজিদের পাওনা অস্বীকার করেন সোহেল। এনিয়ে মসজিদ কমিটির লোকজনের সঙ্গে তার বাগবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে কমিটির সাধারণ সম্পাদক ইকবালসহ কয়েকজনকে মারধর করেন সোহেল।

মামলার বাদীপক্ষের আইনজীবী গোলাম মহিউদ্দিন স্বপন জানান, বিচারক মামলাটি আমলে নিয়ে সদর মডেল থানা পুলিশকে তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দিতে বলেছেন।

আবুল হাসনাত মো. রাফি/এসআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]