পিরোজপুরে স্কুলের ছাদের পলেস্তারা খসে শিক্ষার্থী আহত

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি পিরোজপুর
প্রকাশিত: ০৪:৪৫ পিএম, ১৯ মে ২০২২
ফাইল ছবি

পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলায় পাঠদান চলাকালে জরাজীর্ণ স্কুল ভবনের ছাদের পলেস্তারা খসে আধুনিকা খান (৮) নামে এক শিশু আহত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৯ মে) বেলা ১১টার দিকে উপজেলার উত্তর ভান্ডারিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

আহত স্কুলছাত্রী ওই বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী। তাকে স্কুল কর্তৃপক্ষ উদ্ধার করে ভান্ডারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছে।

আহত শিশু উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা দপ্তরের অফিস সহকারী ও সদরের স্টিমারঘাট মহল্লার আবুল কালাম আজাদ খানের মেয়ে।

সংশ্লিষ্ট স্কুল ও আহত স্কুলছাত্রীর পরিবার সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার উত্তর ভান্ডারিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বৃহস্পতিবার যথারীতি পাঠদান চলছিল। এসময় তৃতীয় শ্রেণির কক্ষে হঠাৎ জরাজীর্ণ ভবনের ছাদের পলেস্তারা খসে পড়ে। এতে আধুনিকা ঘাড় ও বাহুতে গুরুতর আঘাত পায়। তৎক্ষণাৎ শিক্ষকরা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

আহত স্কুলছাত্রীর বাবা আবুল কালাম আজাদ বলেন, বিদ্যালয়টি বহু পুরাতন। দীর্ঘদিনে সংস্কার কিংবা নতুন ভবন নির্মাণ হয়নি। ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে পাঠদান চলছে। স্কুল কর্তৃপক্ষ মোবাইলে আমার মেয়ে আহত হওয়ার খবর দিয়েছেন। তারাই হাসপাতালে ভর্তি করেছেন।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রাম প্রসাদ পাল বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ১৯৪৪ সালে বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত। এই ভবনটি ২০০৪ সালে নির্মাণ করা হয়। বহুবছর ধরে ভবনটি জরাজীর্ণ হয়ে পড়লেও সংস্কার হয়নি। নতুন স্কুল ভবন দরকার। আমরা শিক্ষার্থীদের নিয়ে আতঙ্কেই পাঠদান করছি। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

এ বিষয়ে ভান্ডারিয়া উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. মো. নাছির উদ্দিন খলিফা বলেন, প্রধান শিক্ষক তাকে বিষয়টি জানিয়েছেন। জরাজীর্ণ কক্ষে পাঠদান বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানিয়ে নতুন ভবন নির্মাণের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

এমআরআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]