ফরিদপুরে চোরাই গরু জবাই করে বিক্রি, কসাই পলাতক

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ফরিদপুর
প্রকাশিত: ০৪:৪২ পিএম, ২২ মে ২০২২

ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে চোরাই গরু জবাই করে বিক্রির অভিযোগ উঠেছে এক কসাইয়ের বিরুদ্ধে। পরে এলাকাবাসীর সন্দেহ হলে জেরার মুখে কৌশলে পালিয়ে যায় অফুরন্ত গোস্ত ভাণ্ডারের মালিক কাবুল সরদার।

রোববার (২২ মে) উপজেলার পরমেশ্বর্দী ইউনিয়নের জয়পাশা বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, শনিবার রাতে উপজেলার পরমেশ্বর্দী গ্রামের বিধবা সকুরোন বেগমের লাল রঙের একটি দুই বছরের বকনা গরু চুরি হয়। যার আনুমানিক মূল্য ৬০-৭০ হাজার টাকা। পরদিন সকালে ওই গরুটি জবাই করে স্থানীয় জয়পাশা বাজারে মাংস বিক্রি  করছিলেন একই গ্রামের কাবুল সরদার। এসময় গরুর মালিকসহ এলাকাবাসীর সন্দেহ হলে তারা গরুর উৎস সম্পর্কে কাবুলকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। জবাবে তিনি গরুটির বিক্রেতা হিসেবে একই গ্রামের ইকতার মোল্যার নাম প্রকাশ করেন। পরে খোঁজখবর নিতে গেলে ইকতার মোল্যাকে এলাকায় পাওয়া যায়নি। অপরদিকে কসাই কাবুলও কৌশলে গা ঢাকা দেন।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত অফুরন্ত গোস্ত ভাণ্ডারের মালিক কাবুল সরদার ও তার সহযোগী সিরাজুল ইসলামের মোবাইলে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাদের পাওয়া যায়নি।

সকুরোন বেগমের ভাই দবির ফকির জাগো নিউজকে বলেন, এ বিষয়ে আমরা আইনের আশ্রয় নিবো।

বোয়ালমারী থানার ডহরনগর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. মনির হোসেন বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে কসাইকে পাইনি। তিনি মাংস বিক্রি করা অবস্থায় দোকান ফেলে কৌশলে পালিয়ে যান। স্থানীয় মাতুব্বর এবং তার আত্মীয়-স্বজনকে আজকে দিনের মধ্যে কসাইকে হাজির করার মৌখিক নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

এন কে বি নয়ন/আরএইচ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]