সাঁতার কাটতে গিয়ে প্রাণ গেলো এসআইয়ের

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সাতক্ষীরা
প্রকাশিত: ০২:৫৩ পিএম, ২৯ মে ২০২২
এসআই রাশেদুল ইসলাম

পুকুরে সাঁতার কাটার সময় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে রাশেদুল ইসলাম (৪০) নামের এক পুলিশ সদস্যের মৃত্যু হয়েছে ।

রোববার (২৯ মে) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে সাতক্ষীরা কলারোয়া থানার পুকুরে এ ঘটনা ঘটে। রাশেদুল ইসলাম মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার গোপালনগর গ্রামের মৃত লোকমান হোসেনের ছেলে। তিনি কলারোয়া থানায় উপ-পরিদর্শক (এসআই) হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

কলারোয়া ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন কর্মকর্তা মো. ওবায়দুল্লাহ জাগো নিউজকে বলেন, ‘এসআই রাশেদ গোসলের সময় পানিতে ডুবে গেলে তাকে আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না এমন সংবাদে ঘটনাস্থলে যায় একটি টিম। দুই মিনিটের মধ্যেই অচেতন অবস্থায় তাকে উদ্ধার করা হয়। পরে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়।

কলারোয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা ডাক্তার শফিকুল ইসলাম জাগো নিউজকে বলেন, সকাল ৯ ৫০ মিনিটে কলারোয়া থানা পুলিশ ও কলারোয়া ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা অচেতন অবস্থায় এসআই রাশেদুল ইসলামকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন। প্রাথমিক চিকিৎসা ও পরীক্ষা করে নিশ্চিত হওয়া যায়, তিনি পানিতে সাতার কাঁটার সময় হৃদরোগে আক্রান্ত হন। হাসপাতালের সব কার্যক্রম শেষে মরদেহটি কলারোয়া থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

কলারোয়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসির উদ্দীন মৃধা জাগো নিউজকে বলেন, রাশেদুল ইসলাম গত দেড়মাস আগে কলারোয়া থানায় পুলিশের সাব ইন্সপেক্টর পদে যোগদান করেন। সকালে থানা পুকুরে গোসল করতে গিয়ে সাঁতার কাটার সময় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে পুকুরের পানিতে ডুবে যান৷ তাৎক্ষণিক কলারোয়া ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সকে সংবাদ দিলে পুকুর থেকে তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন৷

ওসি আরও বলেন, তার পরিবারে স্ত্রী, দুই মেয়ে ও এক ছেলে রয়েছে৷ প্রাথমিক সুরতহাল ও ময়নাতদন্ত শেষে বাদ জোহর সাতক্ষীরা পুলিশ লাইনে জানাজা শেষে তার মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে৷

আহসানুর রহমান রাজীব/এসজে/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]