৩১ কিমি সাইকেল চালিয়ে পদ্মা সেতু দেখলো ১০১ শিক্ষার্থী

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি শরীয়তপুর
প্রকাশিত: ১১:৫০ এএম, ২৩ জুন ২০২২
পদ্মা সেতু দেখতে ৩১ কিমি সাইকেল চালায় তারা

পদ্মা সেতু দেখতে সাইকেল শোভাযাত্রা নিয়ে শরীয়তপুর থেকে রওনা দেন বিভিন্ন স্কুল ও কলেজের ১০১ শিক্ষার্থী। ‘শরীয়তপুর সাইক্লিস্ট’ নামের একটি সংগঠনের সদস্য হিসেবে তারা ৩১ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে পদ্মা সেতুতে আসেন।

বুধবার (২২ জুন) দুপুর সাড়ে ১২টায় শরীয়তপুর পৌর শহরের চৌরঙ্গী মোড় থেকে যাত্রা শুরু করে তারা। পরে জাজিরা উপজেলার টিএন্ডটি মোড় পৌঁছালে তাদের শোভাযাত্রার উদ্বোধন করেন পানিসম্পদ উপমন্ত্রী ও শরীয়তপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য এ কে এম এনামুল হক শামীম এবং
শরীয়তপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন অপু।

এর আগে শরীয়তপুরের জেলা প্রশাসক মো. পারভেজ হাসান শরীয়তপুর শহরে বাইসাইকেল চালিয়ে ‘শরীয়তপুর সাইক্লিস্ট’ সদস্যদের উৎসাহ দেন। তখন ‘সোনালি সেতুর শ্যামল ভূমির শরীয়তপুরে আপনাকে স্বাগতম’ স্লোগানে মুখরিত হয়ে ওঠে। শোভাযাত্রার আয়োজক হিসেবে ছিলেন শরীয়তপুর-১ আসনের সংসদ সদস্যর ছেলে দানিব বিন ইকবাল।

jagonews24

শরীয়তপুর শহর থেকে জাজিরার পদ্মা সেতুর টোল প্লাজা দূরত্ব ৩১ কিলোমিটার। আসা যাওয়া মিলিয়ে বাইসাইকেলে তারা ৬২ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়েছেন। ‘শরীয়তপুর সাইক্লিস্ট’ সদস্যরা স্কুল-কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। শরীয়তপুর শহর থেকে তাদের পদ্মা সেতুর টোল প্লাজায় পৌঁছাতে প্রায় সাড়ে তিন ঘণ্টা সময় লেগেছে।

‘শরীয়তপুর সাইক্লিস্ট’ এর সমন্বয়ক আবদুল মোতালেব বলেন, পদ্মা সেতু আমাদের গৌরবের। ২৫ জুন পদ্মা সেতু উদ্বোধন হবে। ওই দিন আমাদের সাইকেল শোভাযাত্রা নিয়ে যাওয়ার কথা ছিল। তবে নিরাপত্তার কারণে অনুমতি পাইনি। তাই আমরা আজ বাইসাইকেল চালিয়ে পদ্মা দেখতে গিয়েছি। সত্যিই শোভাযাত্রাটি ছিল ভালো লাগার অনুভূতি। খুব উপভোগ করলাম।

মো. ছগির হোসেন/এসজে/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]