ক্লাসের ফাঁকে পানি খেতে বেরিয়ে স্কুলের পাশে মিললো শিশুর মরদেহ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ফেনী
প্রকাশিত: ০৭:৪০ পিএম, ২৫ জুন ২০২২

ফেনীর দাগনভূঞায় মিফতাহুল জান্নাত অর্পা (৫) নামে এক শিশুকে নির্যাতনের পর গলায় ফাঁস দিয়ে হত্যা করা হয়েছে। শিশুটি স্কুলে গিয়ে ক্লাসের ফাঁকে পানি খেতে বেরিয়ে এই হত্যাকাণ্ডের শিকার হয় বলে জানিয়েছেন স্বজনরা।

শনিবার (২৫ জুন) দুপুরে উপজেলার জায়লস্কর ইউনিয়নের দক্ষিণ নেয়াজপুর গ্রামের নেয়াজ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পেছন থেকে শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত অর্পা একই এলাকার বক্সআলী ভূঞা বাড়ির ওসমান গনির মেয়ে ও নেয়াজপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রাক-প্রাথমিকের শিক্ষার্থী।

নিহত শিশুর ফুপু তোহরা আক্তার বিউটি বলেন, আমাদের বাড়ির পাশেই নেয়াজপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। শনিবার স্কুলে গিয়েছিল অর্পা। এরপর ক্লাসের ফাঁকে পানি খাওয়ার জন্য বেরিয়ে নিখোঁজ হয় সে। অনেক খোঁজাখুঁজির পর বিদ্যালয়ের পেছনে কবরস্থানের ঝোপের মধ্যে গাছের সঙ্গে তার মরদেহ ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়। পরে খবর পেয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থলে এসে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ফেনী জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

দাগনভূঞা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাসান ইমাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ময়নাতদন্ত শেষ না পর্যন্ত এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো যাচ্ছে না। তবে প্রাথমিক ধারণা করা যাচ্ছে, শিশুটিকে শারীরিক নির্যাতনের পর হত্যা করা হয়েছে।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মামুনুর রশিদ মিলন বলেন, আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। শিশুটির মরদেহ দেখে স্থানীয় সবাই হতবাক। এ বিষয়ে দ্রুত আইনি ব্যবস্থা নিতে নিহতের পরিবারকে বলা হয়েছে।

নুর উল্লাহ কায়সার/এমআরআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]