ব্ল্যাকমেইলের শিকার হয়ে আত্মহত্যা, ৫ যুবক কারাগারে

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি পটুয়াখালী
প্রকাশিত: ০৯:০১ এএম, ০১ জুলাই ২০২২
পুলিশের হাতে গ্রেফতার পাঁচ যুবক

পটুয়াখালীর দশমিনায় ব্ল্যাকমেইলের শিকার হয়ে আত্মহত্যার ঘটনায় পাঁচ যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাদের জেলা কারাগারে পাঠানো হয়।

গ্রেফতাররা হলেন- দশমিনা সদর উপজেলার পূর্বলক্ষ্মীপুর গ্রামের নুরু খায়ের ছেলে মো. নিজাম খাঁ, পটুয়াখালী পৌর শহরের কাঠপট্টি এলাকার খালেক হাওলাদারের ছেলে বেল্লাল হাওলাদার (২৬), কাদের সিকদারের ছেলে সাইদ সিকদার ওরফে (বখাটে আধার) (২৭), শাহজাহান গাজীর ছেলে (জোকার) শাহেদ গাজী (২৮) ও আলতাফ মৃধার ছেলে (মোটা) শাহেদ মৃধা (২৭)।

এর আগে এ ঘটনায় শহিদুল নামে এক যুবককে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠায় পুলিশ। বর্তমানে তিনি জামিনে রয়েছেন। এ নিয়ে গ্রেফতারের সংখ্যা মোট ছয়জন।

পুলিশ জানায়, রমেন ঘরামির সঙ্গে এক নারীর আপত্তিকর অবস্থায় ছবি ও ভিডিও ধারণ করে নিজাম খাঁ। সেই ভিডিও ইন্টারনেটে ছেড়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে টাকা দাবি করেন নিজাম খাঁ ও তার সহযোগীরা। এক পর্যায়ে ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দিলে বিষয়টি ভাইরাল হয়।

১৯ জুন বিকেলে দশমিনা উপজেলার গোলখালী কাঁচা সড়কের ওপরে দাঁড়িয়ে বিষপানে আত্মহত্যা করেন রমেন ঘরামী। এ ঘটনায় তার বাবা রনজিৎ ঘরামি বাদী হয়ে দশমিনা থানায় মামলা করেন। এ ঘটনায় নারায়ণঞ্জ থেকে নিজাম খাঁ’কে গ্রেফতার করা হয়। তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ২৯ জুন রাতে পটুয়াখালী শহরের কাঠপট্টি এলাকা থেকে আরও চারজনকে গ্রেফতার করা হয়।

পটুয়াখালী অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ) আহমাদ মাঈনুল হাসান জাগো নিউজকে বলেন, আত্মহত্যার আগে প্রতারণার ঘটনা উল্লেখ করে রমেনের একটি ভিডিও বার্তা ছড়িয়ে পড়ে। এছাড়া মামলার বাদীর তথ্যের ভিত্তিতে আসামিদের গ্রেফতার করা হয়। জড়িত অন্য আসামিদের গ্রেফতারে চেষ্টা অব্যাহত আছে।

আব্দুস সালাম আরিফ/এসজে/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]