অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী হাসপাতালে, সড়কে প্রাণ গেলো স্বামীর

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি যশোর
প্রকাশিত: ০৮:৫০ পিএম, ০৩ জুলাই ২০২২

স্ত্রীর সিজার হওয়ার কথা সকাল ৯টার দিকে। অথচ আলট্রাসনো রিপোর্ট রয়েছে পাঁচ কিলোমিটার দূরে গ্রামের বাড়িতে। সেই রিপোর্ট আনতে যাচ্ছিলেন জাহিদ হাসান জুয়েল (৩২) নামের একজন টেক্সাটাইল প্রকৌশলী।

তবে শহর থেকে আর বাড়ি পর্যন্ত পৌঁছাতে পারেননি তিনি। চৌগাছা-যশোর সড়কের কয়ারপাড়া এলাকায় একটি পরিবহনকে সাইড দিতে গিয়ে সড়কের পাশে পুঁতে রাখা কংক্রিটের খুঁটিতে আঘাত লেগে মারাত্মক আহত হন। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে সেখানে তার মৃত্যু হয়।

রোববার (৩ জুলাই) সকাল ৯টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

জাহিদ হাসান জুয়েল যশোরের চৌগাছার সিংহঝুলী ইউনিয়নের মাজালি গ্রামের আব্দুল মালেকের একমাত্র ছেলে।

তিনি ঢাকার তেজগাঁও টেক্সটাইল কলেজ থেকে ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ে ফ্রিল্যান্সিং পেশায় নিয়োজিত ছিলেন বলে জানা গেছে।

স্বজনরা জানান, জাহিদুলের একটি তিন বছর বয়সী কন্যাসন্তান রয়েছে। স্ত্রী সন্তানসম্ভবা হওয়ায় চৌগাছা শহরের একটি বেসরকারি ক্লিনিকে ভর্তি রয়েছেন। রোববার সকাল ৯টার দিকে তার সিজারিয়ান অপারেশন হওয়ার কথা ছিল। তবে রোগীর সঙ্গে আলট্রাসনো রিপোর্ট না থাকায় স্বামী জাহিদ হাসান সকালে চৌগাছা শহরের ওই ক্লিনিক থেকে নিজের বাড়ি যাচ্ছিলেন রিপোর্ট আনতে।

গন্তব্যের মাঝামাঝি চৌগাছা-যশোর সড়কের কয়ারপাড়া মোড়ে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি বাসকে সাইড দিতে গিয়ে সড়কের পাশে (বাঁকে) পুঁতে রাখা নিরাপত্তা খুঁটিতে আঘাত লাগে। এতে তিনি গুরুতর আহত হন।

স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। সেখানে চিকিৎসকরা প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। তবে অ্যাম্বুলেন্সে ওঠানোর আগেই তার মৃত্যু হয়।

এদিকে জাহিদুল মারা যাওয়ায় তার সন্তানসম্ভবা স্ত্রীর সিজারিয়ান অপারেশন করেননি বলে জানিয়েছেন স্বজনরা। চিকিৎসকের পরামর্শে সোমবার (৪ জুলাই) করা হবে বলে।

উপজেলা হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মাসুম বিল্লাহ বলেন, আঘাতের ফলে তার বাম হাত ও পা ভেঙে যায়। এছাড়া বুকে গুরুতর আঘাতের কারণে তার মৃত্যু হয়েছে।

চৌগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম সবুজ জানান, পরিবারের সদস্যদের কোনো অভিযোগ না থাকায় মরদেহ ময়নাতদন্ত ছাড়াই দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

মিলন রহমান/এসআর

 

 

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]