নেত্রকোনায় শ্বশুরবাড়ি থেকে রিকশাচালকের মরদেহ উদ্ধার

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নেত্রকোনা
প্রকাশিত: ০৬:৫৪ পিএম, ১৩ আগস্ট ২০২২
ফাইল ছবি

নেত্রকোনার পূর্বধলায় শ্বশুরবাড়ি থেকে মো. সাইকুল ইসলাম (৪৪) নামে এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার (১৩ আগস্ট) সকালে সদর ইউনিয়নের নয়াপাড়া এলাকা থেকে পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে।

সাইকুল পূর্বধলার লাঠুনিয়া গ্রামের মৃত আমজাদ আলীর ছেলে। তিনি পেশার রিকশাচালক ছিলেন।

স্থানীয় বাসিন্দা ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সাইকুল ইসলাম প্রায় ১৭ বছর আগে নয়াপাড়া গ্রামের তাইজ উদ্দিনের মেয়েকে বিয়ে করেন। দাম্পত্যজীবনে তাদের দুই সন্তান রয়েছে। তিনবছর আগে তাদের স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কলহের সৃষ্টি হয়। ওই সময় তিনি স্ত্রীকে তার বাবার বাড়িতে রেখে সিলেটে চলে যান। সেখানে তিনি অন্য এক নারীকে বিয়ে করেন। এ অবস্থায় প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে তার যোগাযোগ অনেকটা কমে যায়।

তিনমাস আগে সাইকুল ময়মনসিংহে আরও একটি বিয়ে করে সেখানে বসবাস শুরু করেন। বিষয়টি জানতে পেরে প্রথম স্ত্রী মাসখানেক আগে লোক পাঠিয়ে কৌশলে সাইকুলকে নয়াপাড়া গ্রামে নিয়ে আসেন। এরপর থেকে তিনি শ্বশুরবাড়িতে থেকে সেখানে রিকশা চালিয়ে স্ত্রী-সন্তানকে নিয়ে থাকছিলেন।
শনিবার সকালে শ্বশুরবাড়ির লোকজন বাড়ির পাশে একটি মেহগনি গাছে ঝুলন্ত অবস্থায় সাইকুলের মরদেহ দেখতে পায়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে।

পূর্বধলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. শওকত আলীকে তদন্তের জন্য দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন হাতে পেলে মৃত্যুর প্রকৃত রহস্য জানা যাবে।

এইচ এম কামাল/এমআরআর/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।