সাবেক-বর্তমান চেয়ারম্যানের দ্বন্দ্ব, রিকশাচালককে পিটিয়ে হত্যা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি যশোর
প্রকাশিত: ০৯:২১ পিএম, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২
ফাইল ছবি

যশোর সদর উপজেলায় আলম মন্ডল (৩৫) নামের এক রিকশাচালককে পিটিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলার চুড়ামনকাঠি ইউনিয়নের ছাতিয়ানতলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আলম মন্ডল স্থানীয় চুড়ামনকাটি ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান মুন্নার অনুসারী ছিলেন। স্থানীয় আধিপত্যের দ্বন্দ্বে জেরে বর্তমান চেয়ারম্যান দাউদ হোসেন দফাদারের লোকজন তাকে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

নিহতের ছেলে ইমরান হোসেন বলেন, ‘দুপুর ১টার দিকে ছাতিয়ানতলা এলাকার সন্ত্রাসীরা বাবাকে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর কাজীর বাগানে নিয়ে ১৫-১৬ জন সন্ত্রাসী তাকে বেদম মারধর করে। গুপ্তি (ফাঁপা লাঠির মধ্যে লুকায়িত সরু তরবারি) দিয়ে তার পায়ের নলায় অসংখ্য আঘাত করে এবং হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে পা ভেঙে দেয়। লোকমুখে খবর পেয়ে বাবাকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।’

যশোর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক শুভাশিস রায় জাগো নিউজকে বলেন, মারধরে আঘাতজনিত কারণে তার মৃত্যু হয়েছে। তার দুই পা ভেঙে গেছে।

এ বিষয়ে জানতে চুড়ামনকাটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান দাউদ হোসেন দফাদারের মোবাইল নম্বরে একাধিকবার ফোন দিলেও বন্ধ পাওয়া যায়।

যশোর কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাজুল ইসলাম জাগো নিউজকে বলেন, চুড়ামনকাটি ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান দাউদ হোসেন ও সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান মুন্নার অনুসারীদের বিরোধের জেরে এ হত্যাকাণ্ড ঘটেছে। দাউদ হোসেনের লোকজন আলমকে পিটিয়ে হত্যা করেছে। হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের গ্রেফতারে পুলিশ তৎপর রয়েছে।

মিলন রহমান/এসজে/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।