ধারের টাকা পরিশোধ করতে না পারায় ভ্যানচালককে গাছে বেঁধে নির্যাতন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি জামালপুর
প্রকাশিত: ০৪:২৭ পিএম, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

জামালপুর সদর উপজেলায় পাওনা টাকার জন্য এক ভ্যানচালককে গাছ বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে উপজেলার কেন্দুয়া ইউনিয়নের তুলসীবাড়ি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নির্যাতনের শিকার ভ্যানচালক ওই ইউনিয়নের কাঁচাসড়া গ্রামের বাসিন্দা।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানান, মাস তিনেক আগে ওই ভ্যানচালক তুলসীবাড়ি গ্রামের হাফিজুর রহমানের কাছ থেকে ১০ হাজার টাকা ধার নেন। সেই টাকা তিনি ফেরত দিতে পারছিলেন না। শুক্রবার বিকেলে হাফিজুর ও তার চাচাতো ভাই কামাল হোসেন তাকে মিথ্যা বলে ডেকে আনেন। পরে তারা তাকে গাছের সঙ্গে বেঁধে মারধর করেন। গাছে বেঁধে রাখার একটি ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। সন্ধ্যার দিকে পুলিশ ওই ভ্যানচালককে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এসময় ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ কামাল হোসেনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

ভুক্তভোগী ভ্যানচালক জানান, অভাবে পড়ে তিন মাস আগে পাশাপাশি এলাকার হাফিজুর রহমানের কাছ থেকে তিনি ১০ হাজার টাকা ধার নেন। জিনিসপত্রের দাম বেড়ে যাওয়ায় সংসার চালাতে হিমশিম খাচ্ছিলেন। তাই সময়মতো ধারের টাকা শোধ করতে পারছিলেন না। টাকা দিতে দেরি হওয়ায় মিথ্যা বলে ডেকে এনে গাছের সঙ্গে বেঁধে হাফিজুর ও তার চাচাতো ভাই তাকে মারধর করেন।

জামালপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী শাহনেওয়াজ বলেন, খবর পেয়ে হাফিজুরের বাড়ি থেকে ওই ভ্যানচালককে উদ্ধার করা হয়। থানায় এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

মো. নাসিম উদ্দিন/এমআরআর/জেআইএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।