পঞ্চগড়ে নৌকাডুবি: ইজারাদার-অদক্ষ মাঝিকে অভিযুক্ত করে প্রতিবেদন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি পঞ্চগড়
প্রকাশিত: ০৬:১৩ পিএম, ০৩ অক্টোবর ২০২২
ফাইল ছবি

পঞ্চগড়ের আউলিয়ার ঘাটে নৌকাডুবির ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটি রোববার তাদের প্রতিবেদন জমা দিয়েছে। প্রতিবেদনে নৌকাডুবির কারণ হিসেবে ইজারাদারের গাফিলতি, অদক্ষ মাঝি, অসচেতনতা, অতিরিক্ত যাত্রী, নৌকায় ত্রুটিসহ বেশি কিছু কারণ চিহ্নিত করা হয়েছে। সেইসঙ্গে প্রতিবেদনে একটি সুপারিশমালাও উল্লেখ করা হয়েছে।

সোমবার (৩ অক্টোবর) দুপুরে জেলা প্রশাসনের সম্মেলন কক্ষে নৌকাডুবির ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত ৯ পরিবারকে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের অর্থসহায়তা অনুষ্ঠানে সংবাদকর্মীদের এ কথা জানান জেলা প্রশাসক মো. জহুরুল ইসলাম। তবে প্রতিবেদন নিয়ে তিনি বিস্তারিত কোনো তথ্য প্রকাশ করতে রাজি হননি।

jagonews24

গত ২৫ সেপ্টেম্বর বোদা উপজেলার আউলিয়ার ঘাটে মর্মান্তিক ওই নৌকাডুবির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ৬৯ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। নিখোঁজ রয়েছেন তিনজন। ঘটনার পরপরই নৌকাডুবির কারণ বের করতে পঞ্চগড়ের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট দীপঙ্কর রায়কে প্রধান করে পাঁচ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে জেলা প্রশাসন। তিনদিনের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশনা থাকলেও পরে আরও তিন কর্মদিবস সময় বৃদ্ধি করা হয়। রোববার তারা প্রতিবেদন জমা দেন।

তদন্ত কমিটির প্রধান ও অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট দীপঙ্কর রায় বলেন, আমরা মরদেহ উদ্ধারসহ তাৎক্ষণিক খোলা তথ্যকেন্দ্রেও দায়িত্ব পালন করি। এজন্য তিনদিন সময় বাড়িয়ে আবেদন করা হয়েছিল। রোববার জেলা প্রশাসক বরাবর সেই প্রতিবেদন দাখিল করা হয়েছে।

জেলা প্রশাসক মো. জহুরুল ইসলাম বলেন, আমরা তদন্ত প্রতিবেদন সরকারের কাছে পাঠিয়েছি। তাদের নির্দেশনা অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবো। নৌকাডুবির ঘটনায় ইজারাদার এবং অদক্ষ মাঝির দায় রয়েছে। এছাড়া ৭-৮টি কারণ চিহ্নিত করা হয়েছে প্রতিবেদনে। প্রতিবেদনে একাধিক সুপারিশ তুলে ধরা হয়েছে। সেই সঙ্গে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসও তদন্ত করেছে। তিনটি রিপোর্ট জমা হওয়ার পর নির্দেশনা অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সফিকুল আলম/এমআরআর/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।