স্কুলের জায়গার অবৈধ দখল উচ্ছেদ, নির্মাণ হচ্ছে নতুন ভবন

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি কালীগঞ্জ (গাজীপুর)
প্রকাশিত: ০১:০৬ পিএম, ০৪ অক্টোবর ২০২২

গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজেলার বাহাদুরসাদী ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডে অবস্থিত খলাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। ১৮৯৫ সালে একতলা বিশিষ্ট বিদ্যালয়ের ১২৮ জন ছাত্রছাত্রীর জন্য প্রথম শ্রেণি থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত রুম ছিল মাত্র চারটি। এর মধ্যে একটি শিক্ষকদের অফিস কক্ষ হিসেবে ব্যবহৃত হতো। যে কারণে শ্রেণিকক্ষ সংকটের জন্য ব্যাহত হচ্ছিল পাঠদান।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিষয়টি স্থানীয় শিক্ষা অফিসে জানালে ২০১৯ সালে ওই বিদ্যালয়ের নতুন ভবন নির্মাণে প্রায় ৬৮ লাখ টাকা বরাদ্দ হয়। কিন্তু বাঁধসাধে স্থানীয় প্রভাবশালীদের অবৈধ দখল। প্রভাবশালী ওই মহল স্কুলের জায়গায় দোতলা বাড়ি ও দোকান ঘর তৈরি করে অবৈধভাবে দখল করে রাখেন। দুই বছর চেষ্টার পরেও যখন অবৈধ দখলদার উচ্ছেদ করা যাচ্ছিল না। পরে চলতি বছরে মে মাসে কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইউএনও মো. আসসাদিকজামানের হস্তক্ষেপে অবৈধ দখলদার উচ্ছেদ করে সেখানে চারতলা ফাউন্ডেশন দিয়ে নতুন ভবন নির্মাণ হচ্ছে। বিদ্যালয়ের নতুন ভবন নির্মাণ হতে দেখে খুশি শিক্ষক, অভিভাবক ও কোমলমতি শিক্ষার্থীরা।

খলাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অঞ্জনা দে বলেন, আমাদের বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের পাঠদানে এখন আর কোনো সমস্যা হবে না। ইউএনওর হস্তক্ষেপে স্কুলের জায়গা থেকে অবৈধ দখল উচ্ছেদ করে সেখানে নতুন ভবন নির্মাণ হচ্ছে।

কালীগঞ্জ উপজেলা প্রকৌশলী মো. বেলাল হোসেন সরকার জানান, খলাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নামে ২০১৯ সালে ভবন তৈরির জন্য প্রায় ৬৮ লাখ টাকা বরাদ্ধ হয়েছিল। কিন্তু স্কুলের জমিতে প্রভাবশালীরা দোতলা বাড়ি ও দোকান ঘর তুলে দখল করে রাখেন। পরে উপজেলা নির্বাহী আফিসারের হস্তক্ষেপে তা উচ্ছেদ করে দুই বছর পর ওই বরাদ্ধ টাকা দিয়ে স্কুলের ভবন নির্মাণ হচ্ছে।

উপজেলা শিক্ষা অফিসার নুরুন্নাহার জানান, বরাদ্ধ ভবন না হওয়ায় স্কুলটির পাঠদান মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছিল। পরে ইউএনওর হস্তক্ষেপে দখল ওই জমি উদ্ধার করে সেখানে স্কুলের নতুন ভবন নির্মাণ হচ্ছে।

আবদুর রহমান আরমান/এমআরআর/জেআইএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।