ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতাল

সকাল ৮টায় অফিস, ৯টার পরে আসেন চিকিৎসক

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ব্রাহ্মণবাড়িয়া
প্রকাশিত: ০৫:২৯ পিএম, ৩০ নভেম্বর ২০২২

ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের দুই চিকিৎসকের বিরুদ্ধে দেরিতে হাসপাতালের আসার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সকাল ৮টায় হাসপাতালে আসার কথা থাকলেও তারা আসেন ৯টার পরে। এতে ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন চিকিৎসা নিতে আসা রোগীরা।

মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) হাসপাতালটিতে গিয়ে এসব অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়।

নিয়মানুযায়ী সরকারি হাসপাতালের বহিঃবিভাগে শনিবার থেকে বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত চিকিৎসকরা তাদের নির্ধারিত কক্ষে সেবা দেবেন। হাসপাতালের অন্যান্য কর্মকর্তা ও কর্মচারীরাও একই নিয়মে অফিস করবেন। কিন্তু মঙ্গলবার এ প্রতিবেদক দেখতে পান, হাসপাতালের কার্ডিওলজি চিকিৎসকের কক্ষ ‘১০৯এ’ এর তালা খোলা হয় সকাল ৯টায়। এর পাঁচ মিনিট আগে তালা খোলা হয় চর্মরোগ চিকিৎসকের কক্ষ ‘১০৯বি’।

jagonews24

তালা খোলার পর ৯টা ৫ মিনিটে ১০৯এ কক্ষে আসেন চিকিৎসক মোস্তাফিজুর রহমান। পৌনে ১০টায় ১০৯বি কক্ষে আসেন চিকিৎসক জাকারিয়া। অথচ সকাল ৮টা থেকেই ওই দুই কক্ষের সামনে রোগীদের লাইন দেখা যায়।

রোগীরা জানান, তারা প্রায় দেড় ঘণ্টা ধরে লাইনে দাঁড়িয়ে আছেন। কিন্তু চিকিৎসক আসেননি। এই দুই কক্ষের চিকিৎসক নিয়ম অনুযায়ী তাদের চেম্বারে আসেন না বলে তারা জানান।

দীর্ঘক্ষণ ১০৯/বি কক্ষের সামনে অপেক্ষা করছিলেন আব্বাস উদ্দিন নামের এক চর্মরোগী। তিনি জাগো নিউজকে বলেন, ‌‘সেই সকালে এসে চিকিৎসকের জন্য অপেক্ষা করছি। কিছুক্ষণ আগেও এসে দেখে গেছি। এখন সকাল ৮টা ৪৪ মিনিট বাজে কিন্তু ডাক্তার আসার খবর নেই।’

দেরিতে আসার বিষয়ে জানতে ১০৯এ কক্ষের চিকিৎসক মোস্তাফিজুর রহমানের মোবাইলে কল দিলে তিনি রিসিভ করেন। পরে সাংবাদিক পরিচয় পেয়ে সংযোগ কেটে দেন। এরপর একাধিকবার কল দিলেও ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

১০৯বি কক্ষের চিকিৎসক মোহাম্মদ জাকারিয়া বলেন, ‘এসবের উত্তর আমি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে দেবো। আমি কখন আসবো, তা আমার ব্যাপার’। একথা বলে সংযোগ কেটে দেন।

চিকিৎসকদের দেরিতে আসার বিষয়ে ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. ওয়াহীদুজ্জামান বলেন, যথানিয়মে চিকিৎসকদের হাসপাতালে আসতে হবে। কোনো চিকিৎসক নিয়মের বরখেলাপ করলে তাকে জবাবদিহি করতে হবে। আমরা এসব বিষয়ে ব্যবস্থা নেবো।

আবুল হাসনাত মো. রাফি/এসআর/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।