বিচারপতি নূরউজ্জামান

বিচার যত বিলম্ব হবে, মানুষ ন্যায়বিচার বঞ্চিত হবে

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কিশোরগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৯:১৩ এএম, ২৯ মে ২০২৩

বিচার বিভাগ ২০০৭ সালে স্বাধীন হয়েছে। এখন এ বিচারালয়ে স্বাধীনতা, হস্তক্ষেপবিহীন বিচার এবং দুর্নীতিমুক্ত বিচার আমাদের নিশ্চিত করতে হবে। বিচার যত বিলম্বে হবে, মানুষ তত ন্যায়বিচার থেকে বঞ্চিত হবে বলে মনে করেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের বিচারপতি মো. নূরউজ্জামান।

রোববার (২৮ মে) বিকেলে কিশোরগঞ্জ আদালত প্রাঙ্গণে আগত বিচারপ্রার্থীদের জন্য নির্মিতব্য বিশ্রামাগারের ‘ন্যায়কুঞ্জ’ ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা জানান।

jagonews24

বিচারপতি নূরউজ্জামান বলেন, আমাদের আইনজীবী সমিতির সেক্রেটারি সাফ একটা কথা বলেছেন, যেদিন বিচার বিভাগ স্বাধীন হয়েছে উনি সেদিন এ স্বাধীনতার পক্ষের মানুষ ছিলেন। আমার মনে হয় শতভাগ আইনজীবী এবং বিচারক বিচার বিভাগের স্বাধীনতার স্বপক্ষে ছিলেন। একজনও বিপক্ষে ছিলেন না। তবে আজকে আমাদের সেই দায়িত্বটা বহন করতে হবে। শুধু স্বাধীন হলেই হবে না, রক্ষা করাও আমাদের দায়িত্ব।

কিশোরগঞ্জের সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ সায়েদুর রহমান খান, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক মুহাম্মদ হাবিবুল্লাহ, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২ এর বিচারক মো. রেজাউল করিম, চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের বিচারক মো. আল-মামুন, বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার শেখ মোহা. আমিনুল ইসলাম, কিশোরগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট শহীদুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আমিনুল ইসলাম রতন, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর স্পেশাল পাবলিক প্রসিকিউটর এম এ আফজালসহ বিচারক ও জেলা আইনজীবী সমিতির সব আইনজীবী উপস্থিত ছিলেন।

এসজে/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।