রংপুর মেডিকেলে একসঙ্গে ৫ শিশুর জন্ম


প্রকাশিত: ০৬:২৪ পিএম, ১৯ এপ্রিল ২০১৬

একসঙ্গে ৫ সন্তানের জন্ম দিয়েছেন গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলার কিশামত শেরপুর গ্রামের আরজিনা বেগম নামের এক গৃহবধূ। যেখানে শ্বশুরবাড়ির লোকজন দেখতেই পারতো না আরজিনাকে সেখানে এখন আনন্দের বন্যা বইছে। আরজিনার সেবাযত্নও বেড়ে গেছে অনেকগুণ।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (রমেকে) ৫ সন্তানের জন্ম দেন তিনি। বিয়ের ১২ বছর পর র্দীর্ঘদিনের বন্ধ্যাত্ব ঘুচিয়ে একসঙ্গে ৫টি সন্তানের জন্মদানের ঘটনায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কৌতূহলী মানুষের ভিড় বেড়ে গেছে।

হাসপাতাল ও পরিবারিক সূত্রে জানা যায়, আরজিনা বেগমের সঙ্গে একই এলাকার শেরেগুল ইসলামের (৩৫) বিয়ের হয় প্রায় ১২ বছর আগে। বিয়ের পর থেকে দীর্ঘদিনেও তাদের সন্তান না হওয়ায় শ্বশুরবাড়ির লোকজনের কাছে নানা রকম কটূক্তি শুনতে হতো আরজিনা বেগমকে। অবশেষে মঙ্গলবার তার প্রসব বেদনা শুরু হলে বিকেলে তাকে নিয়ে এসে রংপুর মেডিকেলে ভর্তি করা হয়।


পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে গাইনি চিকিৎসক সিরাজুম মুনিরা ডেইজির নেতৃত্বে একদল চিকিৎসক সফল অস্ত্রোপচার করেন। জন্ম লাভ করে একে একে ৫টি ফুটফুটে সন্তান। যার ৩টি ছেলে ও ২টি মেয়ে।

এই সংবাদে খুশি আরজিনার শ্বশুরবাড়ির পরিবার। শ্বশুর আব্দুল সফু শেখ এখন মহাআনন্দিত। সঙ্গেসঙ্গেই কিনে নিয়ে আসেন প্রয়োজনীয় ওষুধপত্রসহ পরিচর্যার অন্যান্য সামগ্রী। খুশি আরজিনার স্বামী শেরেগুল ইসলাম। তিনি ঢাকার ইবাইস গার্মেন্টেসে কর্মরত থাকলেও এখন ছুটি নিয়ে স্ত্রীর পাশে রয়েছেন।

ডা. সিরাজুম মুনিরা ডেইজি সফল অস্ত্রোপচারের পর জানান, সব বাচ্চাই সুস্থ রয়েছে। ওজন ভালো আছে। ১টি সন্তান কিছুটা দুর্বল হলেও তা কাটিয়ে ওঠা সম্ভব হবে।

জিতু কবীর/বিএ

আপনার মতামত লিখুন :