এসডিজি অর্জনে নতুন প্ল্যাটফর্ম


প্রকাশিত: ১১:১০ এএম, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৭

টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনে বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদান রাখতে নতুন প্ল্যাটফর্ম হচ্ছে। বিশিষ্ট ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের সমন্বয়ে নতুন এ প্ল্যাটফর্ম গঠনের ঘোষণা দিয়েছে ক্ষুদ্রঋণ অর্থায়নকারী জাতীয় প্রতিষ্ঠান পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশন (পিকেএসএফ)।

রোববার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে পিকেএসএফ ভবনে আয়োজিত এক সেমিনারে এ প্ল্যাটফর্ম-এর উদ্বোধন ঘোষণা করা হয়। ‘পিপলস ভয়েস : স্ট্রেনদেনিং এসডিজি ইমপ্লিমেনটেশন ইন বাংলাদেশ’ নামে এ প্ল্যাটফর্মে তিনটি কমিটি থাকবে। এসব কমিটি এসডিজি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নেবে এবং তা বাস্তবায়নের উদ্যোগ গ্রহণ করবে। কমিটিসমূহের পরামর্শক হিসেবে থাকবেন পিকেএসএফ এর চেয়ারম্যান ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ।

ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। তিনি বলেন, ‘আমাদের লক্ষ্যমাত্রা ঠিক আছে। আমরা জানি কোথায় যেতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সামনে থেকে নেতৃত্বে দিচ্ছেন। তাই আমাদের পথ হারানোর আশঙ্কা নেই।’

মুস্তফা কামাল আরও বলেন, ‘দেশের সকল ক্ষেত্রের মানুষই দেশের উন্নয়নে কাজ করছে। দেশের মানুষ বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে প্রবৃদ্ধি যেমন বেড়েছে, তেমনি চাহিদাও বেড়েছে। যারা কার্বন ডাই-অক্সাইড গ্যাসের উৎপাদন করছে তারাসহ সবাইকে একযোগে কার্বন কমাতে কাজ করতে হবে।’

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে এসডিজি বিষয়ক মূখ্য সমন্বয়ক আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘আমাদের দেশের উন্নয়নে বিদেশি পরামর্শকের দরকার নেই। আমরাই ভালো উপদেষ্টা। কাউকে পিছনে ফেলে না দিয়ে সবাইকে নিয়েই এসডিজি অর্জন করতে হবে। আমরা একটি সফটওয়্যার উন্নয়নের চেষ্টা করছি, যাতে করে মন্ত্রী, এমপি ও সচিবরা ঘরে বসেই সব কিছু জানতে পারবেন।’

সেমিনারে অন্যান্য বক্তারা বলেন, বর্তমান সরকারের লক্ষ্য শুধু দারিদ্র বিমোচন নয় বরং দীর্ঘমেয়াদে ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উন্নত দেশের সারিতে উন্নীত করা। এই সুদূরপ্রসারী লক্ষ্য অর্জনের পথে বাংলাদেশ ২০৩০ সালের মধ্যে উচ্চ মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হবে এবং টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের মাধ্যমে উন্নয়নের দৃঢ ভিত্তি লাভ করবে।

সেমিনারে জানানো হয়, সরকারের এই স্বপ্নপূরণের পথে সহযোগী হিসেবে কাজ করছে পিকেএসএফ। পিকেএসএফ টেকসই উন্নয়নের ১৭টি অভীষ্টের মধ্যে ১৩টি এবং ১৬৯টি লক্ষ্যমাত্রার মধ্যে ৩০টি বাস্তবায়নে অবদান রাখছে।

সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খাদ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির স্থায়ী সদস্য মো. আব্দুল ওয়াদুদ। এছাড়া স্বাগত বক্তব্য রাখেন পিকেএসএফ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আবদুল করিম।

এমএ/আরএস/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :