নতুন বাজেটে ব্যবসা চালানো অসম্ভব : আতিকুল ইসলাম


প্রকাশিত: ০৮:৫৪ এএম, ০৫ জুন ২০১৫

নতুন বাজেটে ব্যবসা চালিয়ে যাওয়া সম্ভব হবে না বলে জানিয়েছেন পোশাক প্রস্তুতকারী ও রপ্তানিকারকদের সংগঠন বিজিএমইএর সভাপতি আতিকুল ইসলাম। শুক্রবার দুপুরে ঢাকায় এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

আতিকুল ইসলাম বলেন, যেখানে মুনাফার পরিমাণ ২ থেকে ৩ শতাংশ, সেখানে ১ শতাংশ উৎসে কর দিলে ব্যবসা চালিয়ে যাওয়া সম্ভব হবে না।

২০১৫-১৬ সালের বাজেট ‘বস্ত্রখাতবান্ধব হয়নি’ বলেও তিনি মন্তব্য করেন। সংবাদ সম্মেলনে বিকেএমইএ, বিটিএমএ ও বিপিজিএমইএ’র শীর্ষ নেতারাও উপস্থিত ছিলেন।

আতিকুল ইসলাম বলেন, আমরা ৪৪ লাখ শ্রমিক ভাইয়ের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা  করেছি, যার মধ্যে ৩২ লাখই নারী। উৎস কর কমিয়ে পূর্বের অবস্থায় নিলে আরও অনেক বেশি কর্মসংস্থানের সুযোগ করে দিতে পারব বলে কথা দিচ্ছি। বাংলাদেশের রপ্তানি আয়ের প্রায় ৮০ শতাংশ  তৈরি পোশাক খাত থেকেই আসে, যার আকার বর্তমানে প্রায় ২৫ বিলিয়ন ডলার।

এবার বাজেটে গার্মেন্ট শিল্পের মূলধনী যন্ত্রপাতি আমদানির ওপরও প্রথমবারের মতো এক শতাংশ আমাদানি শুল্ক প্রস্তাব করা হয়েছে, যা প্রত্যাহারের আহ্বান জানান বিজিএমইএ সভাপতি। এমন হলে মূলধনী যন্ত্রপাতির আমদানিকে নিরুৎসাহিত করা হবে। শিল্পের বিকাশ থেমে যাবে।

আতিকুল ইসলাম ছাড়াও বিকেএমইএর সভাপতি একেএম সেলিম ওসমান, বিটিএমএর সভাপতি তপন চৌধুরী, বিজিপিএমইএ রাফেজ আলম চৌধুরীসহ পোশাক খাতের শীর্ষ ব্যবসায়ীরা সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।

এএইচ/এমএস