সূচকের সঙ্গে বেড়েছে লেনদেন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৫০ পিএম, ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) মঙ্গলবার মূল্য সূচক বেড়ে লেনদেন শেষ হয়েছে। সেই সঙ্গে উভয় বাজারে বেড়েছে লেনদেনের পরিমাণ। এর মাধ্যমে দরপতনের এক কার্যদিবস পরেই ঊর্ধ্বমুখী ধারায় ফিরলো দেশের শেয়ারবাজার।

মূল্য সূচক ও লেনদেনের পাশাপাশি এদিন উভয় বাজারে লেনদেন হওয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার দাম বেড়েছে।

ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ১৬৭টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ১২৩টির। আর দাম অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৭টির।

অপরবাজার সিএসইতে লেনদেন হওয়া ২৩৭টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১২৬টির দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ৭৬টির। আর দাম অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৫টির।

লেনদেন শেষে ডিএসইর প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স ৬ পয়েন্ট বেড়ে ৬ হাজার ৮৮ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। অপর দু’টি মূল্য সূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ আগের দিনের তুলনায় এক পয়েন্ট বেড়ে ২ হাজার ২৪৬ পয়েন্টে অবস্থা করছে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ১ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৪০৬ পয়েন্টে।

বাজারে লেনদেন হয়েছে ৫০৩ কোটি ৬৬ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয় ৪৮৬ কোটি ৬৩ লাখ টাকা। সে হিসাবে লেনদেন বেড়েছে ১৭ কোটি ৩ লাখ টাকা। এর মাধ্যমে ডিএসইতে টানা দুই কার্যদিবস লেনদেন বাড়লো।

টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে লংকাবাংলা ফাইন্যা্ন্সের শেয়ার। কোম্পানিটির ১৯ কোটি ৬৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা ব্র্যাক ব্যাংকের ১৬ কোটি ৭০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ১৩ কোটি ১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে আনোয়ার গ্যালভানাইজিং।

লেনদেনে এরপর রয়েছে- প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল, কেয়া কসমেটিক, গ্রামীণফোন, আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজ, মুন্নু সিরামিক, স্কয়ার ফার্মাসিটিক্যাল এবং ন্যাশনাল টিউবস।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক মূল্যসূচক সিএসসিএক্স ১৩ পয়েন্ট বেড়ে ১১ হাজার ৩৫৮ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

বাজারে লেনদেন হয়েছে ৩৫ কোটি ৩৮ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয় ২০ কোটি ৩ লাখ টাকা।

এমএএস/এএইচ/আইআই

আপনার মতামত লিখুন :