আমদানি-রফতানি অফিস এখন ডিজিটাল : বাণিজ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:০১ পিএম, ১৭ জুলাই ২০১৯

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, ব্যবসায়ীদের লাইসেন্স নবায়নসহ প্রয়োজনীয় সেবা গ্রহণ করতে আর আমদানি-রফতানি অফিসে আসার প্রয়োজন হবে না। আমদানি-রফতানি অফিস এখন ডিজিটাল।

বুধবার (১৭ জুলাই) অনলাইন লাইসেন্সিং মডিউলের (ওএলএম) উদ্বোধন এবং সাত দিনব্যাপী নিবন্ধন সনদ নবায়ন মেলা-২০১৯ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। রাজধানীর জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ ভবনের সপ্তম তলায় পুষ্পদাম রেস্টুরেন্ট কনভেনশন হলে আমদানি-রফতানি অধিদফতর এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

দেশের ব্যবসা-বাণিজ্য পরিচালনার জন্য সকল সেবা অনলাইনে প্রদান করা হচ্ছে জানিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, ‘আমদানি ও রফতানি অধিদফতরে অনলাইনে লাইসেন্সিং মডিউল (ওএলএম) চালু করা হলো। এতে করে ব্যবসায়ীদের জন্য সব সেবা অনলাইনে প্রদান করা সম্ভব হবে। ফলে ব্যবসায়ীরা অনেক উপকৃত হবেন। তাদের অর্থ, শ্রম ও সময় সাশ্রয় হবে।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে ডিজিটাল মধ্য আয়ের দেশে পরিণত করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। অনলাইন লাইসেন্সিং মডিউল চালুর মাধ্যমে দেশে ব্যবসা বাণিজ্য সহজ করার ক্ষেত্রে আরও একধাপ এগিয়ে গেল। পেপারলেস ট্রেড সুবিধা প্রদানের জন্য আমরা বিশ্ববাণিজ্য সংস্থার কাছে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। তা বাস্তবায়নের জন্য আমরা কাজ করে যাচ্ছি।’

তিনি বলেন, ‘ব্যবসা পরিচালনার জন্য ইতোমধ্যে অনেক শর্ত শিথিল করা হয়েছে। সংযুক্ত কাগজের সংখ্যা কমানো হয়েছে। স্বল্পতম সময়ের মধ্যে ব্যবসায়ীরা দাফতরিক কাজ শেষ করতে পারবেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘অতি বিনয়ের সঙ্গে ব্যবসায়ীদের বাণিজ্য সেবা নিশ্চিত করতে হবে। প্রতিযোগিতামূলক বিশ্ব বাণিজ্যে টিকে থাকতে হলে পেপারলেস ট্রেডের বিকল্প নেই। দেশের সকল প্রকার বাণিজ্য সংশ্লিষ্ট কাজ ডিজিটাল হওয়া জরুরি ‘

দেশের বাণিজ্য পরিচালনার সকল কার্যক্রম সহজ করার জন্য বলেন বাণিজ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘ব্যবসায়ীরা যাতে বাণিজ্য সংক্রান্ত সকল সেবা সহজেই পেতে পারেন, তা নিশ্চিত করতে হবে। সারাবিশ্বে আমরা প্রচার করছি, বাংলাদেশে অতি সহজেই বাবসা-বাণিজ্য পরিচালনা করা হচ্ছে। আমরা বাংলাদেশে বিনিয়োগের আহ্বান জানাচ্ছি। বাস্তবেও সেটা দেখাতে হবে। ব্যবসা পরিচালনা পদ্ধতি সহজ ও ডিজিটাল করার বিকল্প নেই।’

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. মফিজুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন আমদানি ও রফতানি অধিদফতরের প্রধান নিয়ন্ত্রক প্রাণেশ রঞ্জন সূত্রধর, সাবেক সচিব এবং আমদানি ও রফতানি অধিদফতরের সাবেক প্রধান নিয়ন্ত্রক আফরোজা খানম।

অনলাইন লাইসেন্সিং মডিউলের (ওএলএম) আওতায় আমদানিকারক, রফতানিকারক ও বিনিয়োগকারীদের নিবন্ধন সনদ ২৩ জুলাই পর্যন্ত নবায়ন করা যাবে।

এমইউএইচ/এসআর/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :