ই-ওয়ালেটে বাড়ল লেনদেন সীমা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:২৭ এএম, ২৪ জুলাই ২০১৯

ই-ওয়ালেটের লেনদেন সীমা বাড়িয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এখন থেকে গ্রাহকরা দৈনিক এক লাখ টাকা জমা ও খরচ করতে পারবেন। এতদিন ই-ওয়ালেটে সর্বোচ্চ ৫০ হাজার টাকা জমা ও খরচ করতে পারতেন।

মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) এ সংক্রান্ত একটি সার্কুলার জারি করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পেমেন্ট সিস্টেমস ডিপার্টমেন্ট। সার্কুলারে ই-ওয়ালেটে দৈনিক জমা ও খরচ দ্বিগুণ করা হলেও সর্বোচ্চ স্থিতি, মোট মাসিক জমা ও খরচ আগের মতো চার লাখ টাকা রাখা হয়েছে। তবে ব্যক্তির সঙ্গে প্রতিষ্ঠানের লেনদেন এবং প্রতিষ্ঠানের ই-ওয়ালেট হিসাবের ক্ষেত্রে এ ঊর্ধ্বসীমা প্রযোজ্য হবে না।

নগদ লেনদেন কমিয়ে অনলাইন লেনদেন বাড়াতে কেন্দ্রীয় ব্যাংক অনলাইন ব্যাংকিং, মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিস, ই-ওয়ালেট সেবাসহ বিভিন্ন ব্যবস্থা নিয়েছে। ইতোমধ্যে আইপে সিস্টেম এবং ডি মানি বাংলাদেশ নামের দুটো কোম্পানি ই-ওয়ালেট সেবা দিতে বাংলাদেশ বাংকের লাইসেন্স নিয়েছে। এর মধ্যে আইপে কার্যক্রমে শুরু করলেও ডি মানি বাংলাদেশ এখনও কার্যক্রম শুরু করেনি।

ই-ওয়ালেট হলো ব্যাংকিং ব্যবস্থার বাইরে অ্যাপভিত্তিক অর্থ রাখার একটি ব্যবস্থা। এতে ইলেকট্রনিক ব্যবস্থায় টাকা জমা রেখে দেশের মধ্যে অনলাইনে লেনদেন করা যায়। ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে অনলাইনে লেনদেন করতে হলে ইন্টারনেট ব্যাংকিং সুবিধা থাকতে হয় অথবা ওই অ্যাকাউন্টের বিপরীতে ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ড থাকতে হয়। ওয়ালেটে এর দরকার হয় না।

মোবাইল ফোন, ট্যাব বা ল্যাপটপে নির্দিষ্ট অ্যাপের মাধ্যমে এক অ্যাকাউন্ট থেকে অন্য অ্যাকাউন্টে গ্রাহক নিজেই অর্থ স্থানান্তর করতে পারেন। কয়েকটি মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিস কোম্পানিও মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে সেবা দিচ্ছে। ওইসব অ্যাপ দিয়ে অনলাইন কেনাকাটায় বিল পরিশোধের সুযোগ রয়েছে। ২০১৫ সালে প্রথম এই সেবা চালু করে বাংলাদেশ ব্যাংক।

এসআই/এমআরএম

আপনার মতামত লিখুন :