পুঁজিবাজারে তারল্য বাড়াতে সহায়তা করবে কেন্দ্রীয় ব্যাংক

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:১৪ পিএম, ১৯ জানুয়ারি ২০২০

পুঁজিবাজারে স্থিতিশীলতা এবং তারল্য সংকট কাটাতে ইতিবাচক পদক্ষেপ নিচ্ছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। যা চলতি সপ্তাহেই বাস্তবায়ন করা হবে বলে আশ্বস্ত করেছে ব্যাংক ও আর্থিক খাতের এ নিয়ন্ত্রণ সংস্থা।

রোববার বর্তমান পুঁজিবাজার পরিস্থিতি নিয়ে বাংলাদেশ মার্চেন্ট ব্যাংকার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমবিএ) সঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈঠকে এ আশ্বাস দেন গভর্নর ফজলে কবির।

বৈঠকের বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, বর্তমান পুঁজিবাজার পরিস্থিতি নিয়ে আজ বিএমবিএর সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। সভায় পুঁজিবাজারের বিস্তারিত আলোচনার পাশাপাশি বিএমবিএর প্রস্তাবিত বিশেষ তহবিল নিয়ে আলোচনা হয়। গভর্নর তাদের আশ্বস্ত করেছেন। এ বিষয়ে নীতিনির্ধারণী পর্যায়ে আলোচনা চলছে এবং পুঁজিবাজারের বিষয়ে দীর্ঘমেয়াদি সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। একইসঙ্গে অর্থ মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে আলোচনার পর শিগগিরই বিস্তারিত ইতিবাচক সিদ্ধান্ত জানাবে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র বলেন, পুঁজিবাজার স্থিতিশীলতায় তারল্য সংকট নিরসন ও প্রয়োজনীয় নীতিসহায়তা দিতে পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে। যা নির্দেশনা আকারে জারি করবে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। যাতে করে পুঁজিবাজার দীর্ঘমেয়াদি স্থিতিশীলতায় কাজ করে।

বিএমবিএ সভাপতি ও ইবিএল ইনভেস্টমেন্টের পরিচালক ছায়েদুর রহমান জাগো নিউজকে বলেন, পুঁজিবাজারে এখন তারল্য সংকট চলছে। এ বিষয়টি আমরা বাংলাদেশ ব্যাংককে জানিয়েছি। বাংলাদেশ ব্যাংক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের বিষয়ে আশ্বস্ত করেছে। পাশাপাশি পুঁজিবাজারে তহবিল সহযোগিতা দেয়ার বিষয়ে কাজ করছে বলে জানিয়েছেন গভর্নর।

তিনি আরও বলেন, পুঁজিবাজারে সহযোগিতা দেয়ার বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের মতামত চেয়েছিল অর্থ মন্ত্রণালয়। সহযোগিতার বিষয়টি ইতিবাচকভাবে বিবেচনা করছে বাংলাদেশ ব্যাংক। চলতি সপ্তাহেই প্রস্তাব আকারে অর্থ মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে বলে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে।

এর আগে পুঁজিবাজারে তারল্য সংকট কাটাতে ১০ হাজার কোটি টাকার একটি তহবিল চেয়ে প্রস্তাব দেয় বিএমবিএ। তবে কেন্দ্রীয় ব্যাংক সূত্রে জানা গেছে, বর্তমান তারল্য সংকট কাটাতে ব্যাংকবহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা করা হবে, এটা কোন মাধ্যমে দেয়া হবে তা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

এসআই/বিএ/এমকেএইচ