আয় বেড়েছে গ্রামীণফোনের


প্রকাশিত: ১২:৩৪ পিএম, ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৬

গত বছর তুলনায় দ্বিগুণ আয় করেছে দেশের সবচেয়ে বড় মোবাইল অপারেটর কোম্পানি গ্রামীণফোন। ২০১৫ সালে ১০ হাজার ৪ শ’ ৮০ কোটি টাকা রাজস্ব আয় করেছে গ্রামীণফোন। যা পূর্ববর্তী বছরের তুলনায় দুই শতাংশ বেশি। সোমবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় গ্রামীণফোন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, নতুন গ্রাহক এবং সেবা থেকে অর্জিত রাজস্ব বেড়েছে ২ দশমিক ৪ শতাংশ। সেই সঙ্গে গ্রাহকদের ব্যবহার্য ডিভাইস এবং অন্যান্য রাজস্ব বেড়েছে ৩ দশমিক ৫ শতাংশ। ডাটা রাজস্বের ৬৬ শতাংশ ও মূল্য সংযোজিত সেবার রাজস্ব ৩১ শতাংশ বাড়ায় এই প্রবৃদ্ধি এসেছে বলে দাবি গ্রামীণফোনের। চতুর্থ প্রান্তিকে নতুন গ্রাহক ও ট্রাফিক রাজস্ব ২০১৪ সালে তুলনায় ৫ দশমিক ২ শতাংশ বৃদ্ধি পায়।

গত বছর গ্রামীণফোনে নতুন গ্রাহক যোগ হয়েছে ৫২ লাখ। যার ফলে বছর শেষে গ্রাহক সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫ কোটি ৬৭ লাখ। এই ১০ শতাংশ গ্রাহক প্রবৃদ্ধির ফলে সিম মার্কেট শেয়ার দাঁড়িয়েছে ৪২ দশমিক ৪ শতাংশ। ডাটা গ্রাহকের সংখ্যা ৪৫ শতাংশ বেড়ে ১ কোটি ৫৭ লাখ হয়েছে এবং ডাটা ব্যবহারের পরিমাণ গতবছরের তুলনায় প্রায় তিনগুণ বেড়েছে।

গ্রামীণফোনের সিইও রাজিব শেঠি বলেন,‘বছরের শুরুটা কঠিন হলেও গ্রামীণফোন ব্যবসায়ীক সাফল্য অব্যাহত রাখতে সক্ষম হয়েছে। ডাটা ছিল প্রবৃদ্ধির মূল চালিকা শক্তি অন্যদিকে ভয়েস প্রতিযোগিতামূলক অফারের কারণে চাপে ছিল। তারপরও শেষ অবধি আমরা ভাল করেছি।  

তিনি আরো বলেন, ‘ভবিষ্যতে গ্রাহকের জীবনে ডিজিটাল পার্টনার হিসেবে অবস্থান নিয়ে প্রবৃদ্ধি এবং মূল্যসংযোজনের লক্ষ্য আমরা স্থির করেছি।’

গ্রামীণফোন ২০১৫ এ তার ৩জি নেটওয়ার্ক স্থাপন, ২জি নেটওয়ার্ক এর মানোন্নয়ন এবং আইটি অবকাঠামোর দক্ষতা বৃদ্ধিতে ১ হাজার ৯৩০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করেছে। এদিকে দেশের বৃহত্তম কর দাতা গ্রামীণফোন ২০১৫ সালে সরকারি কোষাগারে কর, ভ্যাট, শুল্ক ও লাইসেন্স ফি হিসেবে ৫ হাজার ১১০ কোটি টাকা দিয়েছে যা কোম্পানির মোট রাজস্ব আয়ের ৪৮ দশমিক ৮ শতাংশ।

আরএম/এসকেডি/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :