কওমির পরীক্ষা চলবে কি-না সিদ্ধান্ত বিকেলে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:১৪ পিএম, ০৩ এপ্রিল ২০২১
ফাইল ছবি

করোনাভাইরাসের ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণের মধ্যে শনিবার (৩ এপ্রিল) শুরু হয়েছে কওমি মাদরাসার দাওরায়ে হাদীস পরীক্ষা। এর মধ্যে আগামী সোমবার (৫ এপ্রিল) থেকে সারাদেশে এক সপ্তাহের জন্য লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার।

এমন পরিস্থিতিতে শুরু হওয়া পরীক্ষা চলবে নাকি স্থগিত করা হবে, সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে জরুরি বৈঠক ডেকেছে কওমি মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড ‘আল হাইআতুল উলইয়া লিল জামিয়াতিল কওমিয়া বাংলাদেশ।’ বিকেলে এ বৈঠক হবে।

বোর্ডের মিডিয়া কমিউনিকেশনে দায়িত্বরত কর্মকর্তা আব্দুল মাজেদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘যথাযথ স্বাস্থবিধি মেনে আমাদের আজকের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। পরীক্ষা শেষ হওয়ার কিছুক্ষণ পর সরকারঘোষিত লকডাউনের খবর জানতে পেরেছি। বিকেলে বৈঠক ডাকা হয়েছে। সেখান থেকে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।’

সরকারের সর্বশেষ ১৮ দফা নির্দেশনা অনুযায়ী, সব ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে। শর্তসাপেক্ষে গত জুলাই থেকে খোলা থাকলেও ২৯ মার্চ থেকে কওমি মাদরাসাও বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছে শিক্ষামন্ত্রী ও জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী। কিন্তু সরকারের নির্দেশনা উপেক্ষা করে শনিবার পরীক্ষা নিয়েছে কওমি মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে দাওরায়ে হাদীস পরীক্ষা নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন ‘আল হাইআতুল উলইয়া লিল জামিয়াতিল কওমিয়া বাংলাদেশের’ পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মাওলানা মুহাম্মাদ ইসমাইল।

তিনি জানান, শনিবার সারাদেশে ২২২টি পরীক্ষাকেন্দ্রে অভিন্ন প্রশ্নপত্রে দাওরায়ে হাদিস পরীক্ষা শুরু হয়। সকাল ৯টা থেকে শিক্ষার্থীরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষায় অংশ নেয়। এ পরীক্ষাটি অনেক আগেই ঘোষণা করা ছিল। এক দফায় রুটিন পরিবর্তন করা হয়েছে। সরকারের নির্দেশনা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনেই আমরা পরীক্ষা নিচ্ছি।

এমএইচএম/এএএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]