‘দীপিকা-রণভীরের বিয়ে হয়নি’

বিনোদন ডেস্ক
বিনোদন ডেস্ক বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:১৭ পিএম, ২০ নভেম্বর ২০১৮

বেশ জমকালো আয়োজনে ইতালিতে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষ হয়েছে বলিউড তারকা দীপিকা পাড়ুকোন ও রণভীর সিংয়ের। বিয়ের আয়োজন শেষে দেশে ফিরে এসেছেন তারা। গত ১৪ নভেম্বর কনকানি ও ১৫ নভেম্বর সিন্ধি রীতিতে বিয়ে করেন তারা। এদিকে তাদের বিয়েকে প্রশ্ন বিদ্ধ করেছেন এক শিখ ধর্মগুরু। ধর্ম মতে দীপিকা-রণভীরের বিয়ে হয়নি বলে দাবি করেছেন তিনি।

দীপিকার পরিবার শুধু কনকানি রীতিতেই কন্যাদান করতে চেয়েছিলেন। পরে রণভীরের ইচ্ছাতে সিন্ধি রীতিতেও বিয়ের আয়োজন করা হয়। লেক কোমোর ভিলা দেল বলবিয়ানেলোতে অনেক খরচ করে অস্থায়ী গুরুদুয়ারা তৈরি করে সিন্ধি রীতিতে বিয়ে হয় দীপবীরের। যে বিয়েকে বলে 'আনন্দ করাজ' অনুষ্ঠান।

শিখ ধর্মগুরুদের দাবি, আনন্দ করাজ সেরিমনি গুরুদুয়ারার বাইরে কোনওভাবেই সম্ভব নয়। তাই দীপবীরের বিয়ে ধর্মমতে সিদ্ধ নয়। কারণ শিখ রীতিতে গ্রন্থসাহেব গুরুদুয়ারা বাইরে নিয়ে যাওয়ার নিয়ম নেই। তাই দীপিকা ও রণভীর এভাবে বিয়ে করে ধর্ম বিরুদ্ধ কাজ করেছেন।

দীপিকা-রণভীরের বিরুদ্ধে ধর্মীয় অবমাননার অভিযোগ এনেছে খোদ ইতালির শিখ ধর্মীয় সংগঠন। বিষয়টি নিয়ে সুবিচার চেয়ে তারা দ্বারস্থ হয়েছে শিখদের সর্বোচ্চ সংগঠন 'অকাল তখত'-এর।

'অকাল তখত'-এর প্রধান জানিয়েছেন, বিষয়টি নিয়ে সুষ্ঠু কোনও অভিযোগ এলে তা খতিয়ে দেখবে ৫ ধর্মগুরু। গুরু গ্রন্থ সাহেব গুরুদুয়ারার বাইরে নিয়ে যাওয়া মানে অকল তখতের হুকুমনামার বিরুদ্ধে যাওয়া। কারণ এই আনন্দ খরাজ সেরিমনি গুরুদুয়ারের মধ্যেই হয়।

এমএবি/এলএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]