সংসদে কড়া জবাব দিলেন জয়া, বাড়িতে বাড়লো পুলিশ

বিনোদন ডেস্ক
বিনোদন ডেস্ক বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:৫৩ পিএম, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

সংসদে দাঁড়িয়ে বলিউডের মাদক-যোগের অভিযোগের সমালোচনা করে বক্তব্য রেখেছিলেন বলিউড অভিনেত্রী তথা সমাজবাদী পার্টির সাংসদ জয়া বচ্চন। সেই বক্তব্যে ছিল বলিউডকে অপমান করা ব্যক্তিদের প্রতি ক্ষোভ। সেই বক্তব্য সমর্থন দিয়েছেন ইন্ডাস্ট্রির অনেক তারকা। সিনেমা বিষয়ক সংগঠনগুলোও জয়াকে বাহবা দিয়েছেন।

এই বক্তৃতার পর জয়া ও তার পরিবার ট্রলের শিকারও হচ্ছে। অনেকে তাদের কটূ কথাও বলছেন। এইসব দেখে আগাম সুরক্ষার ব্যবস্থা করল মুম্বাই পুলিশ। অমিতাভ ও জয়া বচ্চনের বাংলো জলসার বাইরে অতিরিক্ত পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে।

জুহুতে বচ্চন পরিবারের বাংলো জলসার বাইরে বিরাট বাহিনীকে পাহারায় রেখেছে মুম্বাই পুলিশ। আগাম সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিতেই নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে বলে খবর।

১৫ সেপ্টেম্বর সংসদে বক্তব্যের পর সোশাল মিডিয়ায় ট্রলের শিকার হন জয়া বচ্চন। নেটিজেনের একটা বড় অংশ তার নিন্দায় সরব হন। ট্যুইটারে ট্রেন্ড করছিল #ShameOnJayaBachchan হ্যাশট্যাগ। তবে ৭২ বছরের অভিনেত্রী তাঁ মন্তব্যের জন্য বলিউডের একটা অংশ ও অন্যান্য মহল থেকে কুর্নিশও কুড়িয়েছেন।

বুধবার জয়া বচ্চনের পাশে দাঁড়িয়েছে শিব সেনা। দলীয় মুখপাত্র সামনায় বিজেপি নেতা রবি কিষেণের সমালোচনা করে বলা হয়, ‘যারা এই দাবি করছেন, তারা ভণ্ড। তারা দু'রকমের মন্তব্য করেন।’ সামনায় আরও বলা হয় যে, যারা দাবি করছেন, সব শিল্পী ও টেকনিশিয়ানরা মাদকাসক্ত, তাদেরই আগে ডোপিং পরীক্ষা করানো হোক।

মঙ্গলবার রাজ্যসভায় বলিউডের অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াতের নোংরা মন্তব্যের কড়া জবাব দিয়েছেন সমাজবাদী পার্টির সাংসদ ও অভিনেত্রী জয়া বচ্চন। বিজেপির সাংসদ রবি কিষণের মন্তব্যেরও তীব্র নিন্দা করেন তিনি। বলেন, ‘মুম্বাই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিকে অপমান করার ষড়যন্ত্র চলছে। এটা লজ্জার।’

সম্প্রতি সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্তে বলিউডের ড্রাগ-যোগের বিষয়টি উঠে আসায় অভিনেতা-অভিনেত্রীদের বিরুদ্ধে আঙুল উঠেছে। সে বিষয়েই জয়া বচ্চন তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘বিনোদন জগতের মানুষদের সোশ্যাল মিডিয়ায় ভর্ত্সনার শিকার হচ্ছে। যে সব লোকেরা এই ইন্ডাস্ট্রিতে এসেই নাম কামিয়েছেন, তারাই এখন একে নর্দমা বলছেন। আমি এর সঙ্গে একেবারেই সহমত নই। আশা করব, এই ধরনের লোকেদের এই ভাষা ব্যবহার বন্ধ করতে বলবে সরকার।’

প্রসঙ্গত, দিন কয়েক আগেই বলিউড ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিকে ‘গটর’ অর্থাত্ নর্দমা বলে কটাক্ষ করেছিলেন কঙ্গনা রানাওয়াত। তিনি অভিযোগ করেছিলেন, ইন্ডাস্ট্রির ৯৯ শতাংশ মানুষই মাদকের সঙ্গে জড়িয়ে।

এলএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]