সুশান্ত খুনে জড়িত কংগ্রেস!

বিনোদন ডেস্ক
বিনোদন ডেস্ক বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:৪৫ পিএম, ২৪ অক্টোবর ২০২০

সামনেই বিহার নির্বাচন। এ উপলক্ষে উত্তপ্ত এখন সেখানকার রাজনীতির মাঠ। প্রতিযোগিতায় থাকা দলগুলো একে অপরের সঙ্গে কাদা ছোঁড়াছুঁড়িতে মেতেছে। ক্ষমতা ধরে রাখতে কোমর বেঁধে নেমেছে বিজেপি তথা এনডিএ জোট। এই পরিস্থিতিতে বলিউড অভিনেতার মৃত্যুকেই নির্বাচনী হাতিয়ার করতে চাইছে তারা।

এ কথা বলার অপেক্ষা রাখে না যে সুশান্তের মৃত্যু সমগ্র ভারতকেই কাঁপিয়ে দিয়েছে। ইস্যুটাকে কাজে লাগানোর চেষ্টা করেছে অনেকেই। সে তালিকায় শীর্ষে রয়েছে বিজেপি। তারা ইশারা ইঙ্গিতে নানাভাবে মৃত্যুটাকে কংগ্রেসের উপরে চাপানোর চেষ্টা করেছে।

তবে ভোট প্রচারকে সামনে রেখে এবার সরাসরিই সুশান্তের মৃত্যুর দায় কংগ্রেসের উপর দিলো বিজেপি। রাজনীতির ময়দানে সুশান্ত প্রসঙ্গ টেনে এনেছেন বিজেপি নেতা ও অভিনেতা মনোজ তিওয়ারি। শুধু ভোটের প্রচারে এসে বলিউড অভিনেতার মৃত্যুর প্রসঙ্গই টানলেন না, সরাসরি কংগ্রেসকে দায়ী করে বসলেন।

সম্প্রতি বিহারের বাঁকে জেলায় ভোটপ্রচারে গিয়েছিলেন মনোজ তিওয়ারি। নিজের পুরনো গান ‘জিয়া ও বিহার কে লালা’র রিমেক করা ‘শুনা হো বিহার কে ভাইয়া’ গানটি প্রকাশ করেন। তারপর ভাষণ দিতে উঠেই টেনে আনেন সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর ঘটনাকে। বলিউড অভিনেতার মৃত্যুর জন্য সরাসরি দায়ী করেন কংগ্রেসকে।

পাশাপাশি তার মতে, মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারের তৎপরতায় সুশান্ত মৃত্যুতে এফআইআর দায়ের হয় এবং তদন্তও শুরু হয়। এরপরই এনডিএ জোটকে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানান।

তবে অনেকেই আবার তার এই বক্তব্যের সমালোচনা করেছেন। রাজনৈতিক মহলের মতে, ভোট জিততে এটাই এখন বিজেপির অন্যতম হাতিয়ার।

প্রসঙ্গত, সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুতে খুনের তত্ত্ব পুরোপুরি উড়িয়ে দিয়েছে অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্স তথা এইমস (AIIMS)। ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. সুধীর গুপ্ত জানিয়ে দিয়েছেন, আত্মহত্যাই করেছেন বলিউড অভিনেতা। এবার এইমসের সেই মেডিক্যাল রিপোর্টটি পুনর্মূল্যায়ণ করার আরজি জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চিঠি লিখেছেন বিজেপি সাংসদ সুব্রহ্মণ্যম স্বামী। তার চিঠিতে তিনি এইমসের রিপোর্টের কিছু ত্রুটির কথা উল্লেখ করেছেন।

এলএ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]