এবার বিজেপি ছাড়ছেন অভিনেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায়!

বিনোদন ডেস্ক
বিনোদন ডেস্ক বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:১৩ পিএম, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১

পশ্চিমবঙ্গের হুগলির জেলার বিজেপির দলীয় সাংসদ অভিনেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায়। গুঞ্জন ছড়িয়েছে তিনি বিজেপি ছাড়তে চলেছেন। কণ্ঠশিল্পী বাবুল সুপ্রিয়র পর লকেটের বিজেপি ছাড়ার গুঞ্জনে বেকায়দায় রয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের ক্ষমতায় থাকা দলটি।

তাই লকেটকে বিজেপি দলে রাখতে মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা দিল্লিতে তার বাসভবনে দীর্ঘ বৈঠক করেন। ভারতের গণমাধ্যম সংবাদ প্রতিদিন এমনটাই বলছে।

যদিও সেই বৈঠকের বিষয়বস্তু অন্য কিছু ছিল বলেই দাবি করেছেন অভিনেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায়।

ভারতের গণমাধ্যম বলেছে ঘটনার সূত্রপাত দিন কয়েক আগেই আসানসোলের সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেওয়ার পর থেকেই। তারপরেই হুগলির বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়ের দল ছাড়ার জল্পনা ছড়িয়ে পড়ে। তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে লকেট বৈঠক করেছেন বলেই শোনা গিয়েছিল। যদিও লকেট টুইট করে তা উড়িয়ে দেন।

এদিনও সেই কথাই বলেছেন তিনি। বিজেপি ছাড়ার কোনো পরিকল্পনা নেই বলে জোর গলায় জানিয়ে এ প্রসঙ্গে যুক্তিও দিয়েছেন লকেট। তিনি বলেছেন, ‘আমি কেন বিজেপি ছাড়তে যাব? আগামী বছর উত্তরাখণ্ড বিধানসভা নির্বাচনে সহ-পর্যবেক্ষকের দায়িত্ব দিয়েছে। বাংলা থেকে প্রথমবার কোনও মহিলাকে এই ধরনের সুযোগ দেওয়া হয়েছে। আমার সামনে এখন জাতীয় রাজনীতিতে কাজ করার সুযোগ। তা ছেড়ে আমি রাজ্য রাজনীতিতে নিজেকে কেন সীমাবদ্ধ করব। তার কোনও কারণ তো দেখতে পাচ্ছি না।’

অভিনেত্রী লকেট এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘আমাকে উত্তরাখণ্ডের বিধানসভা নির্বাচনে সহ-পর্যবেক্ষক করা হয়েছে। সেখানে দু’দিন সফর করে সোমবার সকালেই আমি দিল্লি ফিরেছি। নাড্ডাজি ডেকে পাঠিয়েছিলেন উত্তরাখণ্ড নিয়ে আলোচনার জন্য। জাতীয় রাজনীতিতে যে সুযোগ আমাকে দেওয়া হয়েছে সেই দায়িত্ব যাতে ভালেভাবে পালন করতে পারি, সেই বিষয়েই তিনি এদিন পরামর্শ দিয়েছেন।’

নাড্ডার সঙ্গে বৈঠকে তার দল ছাড়ার প্রসঙ্গে কোনও আলোচনা হয়নি বলেও দাবি করেছেন লকেট।

এমআই/এলএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]