এবার আসছে জয়ের আদালত

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:৪২ পিএম, ১৭ মার্চ ২০১৯

শাহরিয়ার নাজিম জয়। জনপ্রিয় একজন অভিনেতা। ছোট ও বড়পর্দা; সবখানেই অর্জন করেছেন সুনাম। নাটক-সিনেমার পরিচালনাতেও তিনি দেখিয়েছেন তার মুন্সিয়ানা।

তবে সাম্প্রতিককালে তিনি আলোচনায় এসেছেন ‘সেন্স অব হিউমার’সহ বেশ কিছু অনুষ্ঠানের উপস্থাপনা দিয়ে। স্পষ্টবাদিতা ও ঠোঁটকাটা উপস্থাপক হিসেবে জয় নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। তার উপস্থাপনা মানেই দর্শকের আগ্রহ, তার অনুষ্ঠান মানেই জনপ্রিয়তা।

স্বাভাবিকভাবে টিভি চ্যানেলগুলোতেও তার চাহিদা উপস্থাপক হিসেবে দিন দিন বাড়ছেই। তবে এবার তিনি নতুন প্লাটফর্মে হাজির হচ্ছেন নতুন আঙ্গিকের আয়োজন নিয়ে। অনুষ্ঠানটির সঙ্গে ‍যুক্ত থাকবেন সোহাগ মাসুদ।

শিগগিরই নিজের ইউটিউব চ্যানেলের জন্য তিনি নির্মাণ করতে যাচ্ছেন ‘জয়ের আদালত’ নামের একটি অনুষ্ঠান। যেখানে দেখা যাবে মিডিয়ার নানা অসঙ্গতি। এই আদালতে অতিথি হিসেবে থাকবেন শোবিজে বিবাদ-দ্বন্দ্বে জড়ানো মানুষেরা। আর তাদের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট একজন থাকবেন বিচারক হিসেবে। যেখানে উকিল হিসেবে দেখা দেবেন শাহিয়ার নাজিম জয়।

অভিনব এই আইডিয়ার অনুষ্ঠান নিয়ে জয় জাগো নিউজকে বলেন, ‘শোবিজের ভেতরে অনেক ঘটনা থাকে যেগুলো শোবিজের মানুষদের জন্য অস্বস্তির। এর নেতিবাচক প্রভাব পড়ে শোবিজে। সেই অস্বস্তি কাটানোর চেষ্টা করবো ‘জয়ের আদালত’-এ। এখানে নানারকম সেনসিটিভ ইস্যু উঠে আসবে। শিগগিরই আমার নিজ নামের ইউটিউব চ্যানেল এর প্রচার শুরু হবে।’

টিভি চ্যানেলে উপস্থাপক হিসেবে আপনার অনেক জনপ্রিয়তা। তবে ইউটিউব চ্যানেলের জন্য কেন অনুষ্ঠান বানাবেন? উত্তরে জয় বলেন, ‘এখন ইউটিউব চ্যানেল খুবই মজবুত একটি প্লাটফর্ম। টিভিতে করা অনুষ্ঠানগুলোও ইউটিউবেই বেশি দর্শক রেসপন্স পায়। সেজন্যই নিজের ইউটিউব চ্যানেলে অনুষ্ঠানটি করতে যাচ্ছি আমি।’

‘আমি আশাবদী সাড়া পাবো। ফেসবুকে পাবলিকলি ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়া দেখানোর চেয়ে আমি মনে করি একটি অনুষ্ঠানে এসে যদি কোনো গঠনমূলক আলোচনা হয় এবং সমাধান আসে তবে অনেকেই আগ্রহী হবেন এখানে আসতে’- সেনসিটিভ বিষয় নিয়ে তারকারা প্রকাশ্যে আসতে চান না। সেদিক থেকে ‘জয়ের আদালত’ শোবিজের মানুষদের কাছে কতটুকু সাড়া পাবে তার জবাব দেন শাহরিয়ার নাজিম জয়।

প্রসঙ্গত, শাহরিয়ার নাজিম জয় বর্তমানে একুশে টিভির জন্য আরএফএল প্লাস্টিকস নিবেদিত ‘উইথ নাজিম জয়’ নামের একটি অনুষ্ঠানের উপস্থাপনা করছেন। এখানে প্রতি সপ্তাহে অতিথি হিসেবে হাজির হন শোবিজের নানা অঙ্গনের মানুষেরা।

এলএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]