কলকাতার সিনেমায় প্রশংসিত জাহিদ হাসান ও বাবু

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:০৪ পিএম, ২১ জুলাই ২০১৯

জনপ্রিয় দুই অভিনেতা জাহিদ হাসান ও ফজলুর রহমান বাবু। দুজনেই অভিনয় দিয়ে বাংলাদেশের দর্শকের মনে দাগ কেটে চলেছেন কয়েক যুগ ধরে।

প্রথমবারের মতো কলকাতার কোনো সিনেমায় কাজ করলেন তারা। ছবির নাম ‘সিতারা’। আন্তর্জাতিক অঙ্গনে তাদের যাত্রা নিয়ে বাড়তি আগ্রহ ছিলো সবার। কেমন সাড়া পাবেন কলকাতার দর্শক সমালোচকদের কাছে?

কলকাতার নামি সব শিল্পীরা কাজ করেছেন ‘সিতারা’ ছবিতে। সেখানে অনবদ্য কিছু নাম হলো রাইমা সেন, সুব্রত দত্ত। তাদের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে নিজেদের চরিত্রগুলোতে জমিয়ে তুলতে পারবেন তো এই দুই অভিনেতা?

অবশেষে তারা তা পারলেন। প্রমাণ করলেন সংলাপের ভাষার বৈচিত্রতা থাকলেও অভিনয়ের কোনো বর্ডার নেই। অভিনয় যাদের স্বভাবজাত যোগ্যতা তাদের কাছে দেশও যা, বিদেশও তা।

গেল ১৯ জুলাই কলকাতার বিভিন্ন হলে মুক্তি পেয়েছে জাহিদ হাসান ও রাইমা সেন অভিনীত ‘সিতারা’ চলচ্চিত্রটি। এটি পরিচালনা করছেন আশীষ রায়। প্রখ্যাত ঔপন্যাসিক আবুল বাশারের উপন্যাস ‘ভোরের প্রসূতি’ থেকে নেয়া হয়েছে এই ছবির গল্প। যেখানে সীমান্তের নানা ঘটনা উঠে এসেছে।

এখানে দেখা যাবে একদিন লোভী স্বামী টাকার বিনিময়ে যে স্ত্রীকে বর্ডারে বিক্রি করে দেন সেই স্ত্রী সময়ের পালাবদলে হয়ে উঠেন বর্ডারের স্মাগলিং কুইন। দেহের বিনিময়ে তিনি জয় করে নেন ক্ষমতা আর অর্থ।

সেই স্ত্রী ‘সিতারা’ চরিত্রে অভিনয় করেছেন রাইমা সেন। তার প্রেমিকের চরিত্রে রয়েছেন জাহিদ হাসান।

পশ্চিমবঙ্গের গণমাধ্যমে এরই মধ্যে ছবিটি নিয়ে রিভিউ লেখা শুরু হয়েছে। চমৎকার একটি গল্প থেকে ছবি নির্মাণে অপরিপক্বতা দেখানোর জন্য নির্মাতাকে সমালোচনার কাঠগড়ায় তোলা হলেও রিভিউগুলোতে প্রশংসা করা হচ্ছে জাহিদ হাসান ও ফজলুর রহমান বাবুর। ছবিতে রাইমা সেনের অভিনয় নিয়েও হতাশা প্রকাশ করছেন দর্শক ও সাংবাদিকরা। তবে বাংলাদেশি দুই অভিনেতা তাদের চরিত্রে সেরা ছিলেন।

এনডিটিভি বাংলা বলছে, অভিনয়শিল্পীরা যে যার ইচ্ছে মতো অভিনয় করে গেছেন। সারা ছবি জুড়ে মেপে মেপে সংলাপ বলেছেন কবীর রূপী নাসের। তবে চেহারায় তিনি দুর্দান্ত খল। জীবনের চরিত্রে ফজলুর রহমান বাবু যথাযথ। ভালো লেগেছে মানব রূপী সুব্রত দত্তকে। তবে সমস্ত আশায় জল ঢেলেছেন রাইমা। চাইলে, উনি একা ছবি বয়ে নিয়ে যেতে পারতেন। উল্টো তিনি নিজেই নিজেকে উদ্ধার করতে পারলেন না। ছবিতে কেবল তার শরীরটাকেই ফোকাস করেছেন পরিচালক। তার অভিনয় যোগ্যতার দিকে তিনি মনযোগী ছিলেন না।

তবুও দিলু চরিত্রে জাহিদ হাসানের সঙ্গে রাইমার রসায়ন ও অভিনয় মুগ্ধতা দেয়। দিলু চরিত্রে জাহিদ হাসান নিজেকে নিংড়ে দিয়েছেন ছবিতে।

ছবিটি সাফটা চুক্তিতে বাংলাদেশেও মুক্তি পাবার কথা রয়েছে।

এলএ/জেআইএম

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - [email protected]

আপনার মতামত লিখুন :